ঢাকা : শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পবিত্র আশুরা ১০ সেপ্টেম্বর          ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ ১২:৩২:৩৪
মাদ্রাসা শিক্ষার জন্য জমিয়তুল মোদাররেছীন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে
এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান (চট্টগ্রাম)


 


ইমাম আহলে সুন্নাত পীরে তরিকত আল্লামা আলহাজ্ব কাজী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হাসেমী (মা জি, আ) বলেছেন, বর্তমানে মাদ্রাসা শিক্ষার বিকল্প নেই। মাদ্রাসা শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশ ও জাতিকে স্বাবলম্বি করতে পারে একজন মাদ্রাসার ছাত্র। কারণ মাদ্রাসা শিক্ষায় আরবীর পাশাপাশি ইংরেজী বাংলা, অংক,সাধারণ জ্ঞান, আহরণ করতে পারছে মাদ্রাসা ছাত্ররা। আর মাদ্রাসা শিক্ষার জন্য বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদাররেছীন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মাদ্রাসা, শিক্ষক, শিক্ষিকা, ছাত্র ছাত্রীদের জন্য জমিয়তুল মোদাররেছীনের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত সরকারের নিকট দাবী উপস্থাপন করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, পৃথক আরবী ও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পিছনে জমিয়তুল মোদাররেছীনেরই প্রধান ভুমিকা ছিল। আর সেটি বাস্তবায়ন করতে সরকার বাধ্য হয়েছে মোদাররেছীনের দক্ষতার কারনেই। সারাদেশের মাদ্রাসা গুলোর ভৌত অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের যুগান্তকারী পদক্ষেপ বর্তমান সময়ের জন্য যথাযত। তিনি প্রতিটি পরিবার থেকে কমপক্ষে একজন ছেলে মেয়েকে মাদ্রাসা শিক্ষায় শিক্ষিত করার আহব্বান জানান।
২১ ফেব্র“য়ারী ফটিকছড়ি নানুপুর মজহারুল উলুম গাউছিয়া ফাযিল মাদ্রাসার ৭৮ তম সালানা জলছায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আল্লামা হুসাইন আহমদ ফারুকী ও অধ্যাপক সৈয়্যদ হাফেজ আহমদের যৌথ পরিচালনায় এতে প্রধান অথিতি ছিলেন তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়্যদ মুহাম্মদ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী এমপি।
এতে তকরির করেন আলহাজ্ব আল্লামা মুপতি ওবাইদুল হক নঈমী, আল্লামা মুফতি ইব্রাহীম আল কাদেরী, আল্লামা কাজী মঈনুদ্দীন আশরাফী, আল্লামা আহমদ হোসেন আল কাদেরী, আল্লামা গাজী শফিউল আলম নেজামী, আল্লামা চৌধুরী মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম মুনিরী, অধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ মোসলেহ উদ্দিন আহমদ মাদানী, উপাধ্যক্ষ মুফতি আবদস শুক্কুর আনছারী।
এতে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব মির্জা আবু মুনছুর, আলহাজ্ব এম ফখরুল আনোয়ার, ড.মাহমুদ হাছান, আলহাজ্ব এম আফতাব উদ্দিন চৌধুরী, এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ, আলহাজ্ব সৈয়্যদ ওসমান গনী বাবু, আলহাজ্ব এম তৌহিদুল আলম বাবু, আলহাজ্ব সৈয়্যদ মুহাম্মদ বাকের, আলহাজ্ব এম এস আলম, আল্লামা সৈয়্যদ নুরুল মোনাওয়ার, অধ্যক্ষ আল্লামা ছগির আহমদ ওসমানী, আলহাজ্ব সৈয়্যদ সাইফুদ্দিন আহমদ আল মাইজভান্ডারী, আল্লামা সৈয়্যদ অছিয়র রহমান, আল্লামা সৈয়্যদ মছিহুদৌলাহ, আল্লামা ছোলায়মান আনছারী প্রমুখ। এর আগে পবিত্র খতমে কোরআন, খতমে বোখারী, খতমে গাউছিয়া, খতমে খাজেগান শরীফ অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে ১২জন নতুন হাফেজে কোরআনকে দস্তারবন্দী করা হয়। পরে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করেন মুফতি আলহাজ্ব ওবাইদুল হক নঈমী।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd