ঢাকা : শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০

সংবাদ শিরোনাম :

  • এইচএসসি পরীক্ষায় বিষয় সংখ্যা কমানোর চিন্তা চলছে : শিক্ষামন্ত্রী          কোরোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫০৪ জন          যুক্তরাষ্ট্র আর লকডাউন হবে না : ট্রাম্প          করোনাভাইরাস সারাবিশ্বটাকে স্থবির করে দিয়েছে : হাসিনা          স্ত্রীসহ হাসপাতালে ভর্তি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী          করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ব্যাংক ঋণের ২ হাজার কোটি টাকা সুদ মওকুফ ঘোষণা
printer
প্রকাশ : ২৮ মে, ২০১৫ ১৫:১০:১৫
সিংসাড়া গণহত্যা দিবস ২৬ মে
নওগাঁ সংবাদদাতা


 

মুক্তিযুদ্ধের প্রারম্ভিক সময়। আত্রাই উপজেলার একটি প্রত্যন্ত গ্রাম সিংসাড়া। ২৬ মে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় এই গ্রামের মকবুল চেয়ারম্যানের বাড়িতে তৎকালীন হাবিব ব্যাংকের ম্যানেজারের পরিবার আর কছির উদ্দিনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিল রাজশাহীর কয়েকটি পরিবার। 
খাঁপাড়ার (সিংসাড়ার পার্শ্ববর্তী গ্রাম) কিছু মুসলিম লীগের সমর্থক তাঁরা নাটোর আর্মি ক্যাম্পে খবর দেয় যে সিংসাড়ায় মুক্তিযোদ্ধারা অবস্থান নিয়েছে। সে মোতাবেক নাটোর থেকে পাক আর্মিরা রাত দু’টার দিকে সিংসাড়া গ্রামে আক্রমণ চালায়। চেয়ারম্যান মকবুলের বাড়ি থেকে গুলি ছুড়ে আর্মিদের প্রতিরোধের চেষ্টা চালানো হয়। 
কিন্তু পাক বাহিনীর কাছে কীআর একটি রাইফেল দিয়ে টেকা যায়। তাঁরা একের পর এক গুলি বর্ষণ শুরু করে। শুরু করে তাদের নারকীয় তান্ডব। বাড়িতে বাড়িতে আগুন দেয়া, ধর্ষণ করা, লুটতরাজ করার মহোৎসবে পরিনত হয়। যাকে যেখানে পায় সেখানেই হত্যা করতে থাকে। 
তাদের প্রধান টার্গেট ছিলো মকবুল চেয়ারম্যান। কিন্তু তাঁকে না পেয়ে নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। রাত দু’টা থেকে সকাল আটটা পর্যন্ত গুলি, রাইফেলের বেওনেট দিয়ে খুঁচিয়ে ২৯ জন মানুষ হত্যা করে। 
যাঁদের মধ্যে ছিলেন হাবিব ব্যাংকের ম্যানেজার হানিফ [যাঁর বাড়ি ভোলায়], মকবুল চেয়ারম্যানের স্যালক হাবিবর রহমান [বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র], মকবুলের ছোট ভাই মজিবর রহমান, কছির উদ্দিন দেওয়ান, রাজশাহী কলেজের মেধাবী ছাত্র নেতা ফারুক প্রমুখ। 
পরে শহীদদের সমাধিস্ত করা হয় তাদের নিজ নিজ গ্রামে। দীর্ঘ ৪০ বছর পর ২০০৯ সালে শহীদদের স্মরণে এটি স্মৃতি ফলক নির্মাণ করা হয়। এখানকার ২৯ জন একজন শহীদ কছির উদ্দিন দেওয়ানের স্মরণে গ্রামের মানুষ ভালোবেসে প্রতিষ্ঠা করেন একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘কছির উদ্দিন দেওয়ান মেমোরিয়াল হাই স্কুল ও কলেজ’। 
এখানে প্রায় পাঁচ শতধিক ছাত্রছাত্রী পড়াশুনা করে। দিনটি শহীদ পরিবার সমূহ, একুশে উদ্যাপন পরিষদ নওগাঁ এবং কছির উদ্দিন দেওয়ান মেমোরিয়াল হাই স্কুল ও কলেজ স্মৃতি ফলক পুষ্প স্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভার মাধ্যমে স্মরণ করবে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
বিশেষ প্রতিবেদন পাতার আরো খবর

Developed by orangebd