ঢাকা : শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পবিত্র আশুরা ১০ সেপ্টেম্বর          ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ১৩ জুন, ২০১৫ ১১:৪৬:২৪
সূফিদের তাওহিদ হচ্ছে কোরআনের তাওহিদ


 


রূহানী সংলাপে বক্তারা বলেন, তাওহিদের মূল কথা হচ্ছে- আল্লাহর একত্ববাদে বিশ্বাস করা। আল্লাহর সাথে কারো শরীক না করা। তৌহিদকে বুঝতে হলে রাসূলে করীম (দ.)’র শিক্ষা, সাহাবায়ে কিরামের জীবনাচরণ ও আল্লাহর ওলীগণের আদর্শকে অবলম্বন করতে হবে। রিসালতের স্বীকৃতি ছাড়া তৌহিদ তথা আল্লাহর একত্ববাদের ওপর বিশ্বাস মূল্যহীন।
১০ জুন হামজারবাগস্থ গাউসিয়া হক ভাণ্ডারী খানকাহ্ শরীফের এস জেড এইচ এম ট্রাস্ট মিলনায়তনে মাইজভাণ্ডারী একাডেমির মাসিক রূহানী সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপের বিষয়বস্তু ছিল ‘সুন্নি / সূফি ও সালাফীদের দৃষ্টিতে তাওহীদ’। ট্রাস্টের  সচিব এ এন এম এ মোমিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ রূহানী সংলাপের আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাফর উল্লাহ ও ইসলামী চিন্তাবিদ, সূফি গবেষক আল্লামা শায়েস্তা খান আল-আজহারী। সংলাপ সঞ্চালনায় ছিলেন একাডেমির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মীর মুহাম্মদ তরিকুল আলম।
বক্তারা বলেন, সূফিদের তাওহিদ কোরানের তাওহিদ, পক্ষান্তরে সালাফিদের তাওহিদ হচ্ছে- ষড়যন্ত্রমূলক। কোরআনের বিভিন্ন আয়াত এর তরজুমায় বক্তারা বলেন, তোমরা যদি আমার ভালবাসা পেতে চাও - তাহলে রাসূলকে ভালবাস। নবীর কাছে আনুগত্য প্রদর্শন মানে আল্লাহর আনুগত্য প্রদর্শন করা। “বান্দা তোমাদের প্রার্থনা আমার কাছে না পৌঁছতে পারে। তবে তোমরা যদি আমার মোহসেন বান্দা যেখানে আছে সেখানে ফরীয়াদ করে তাহলে তা আমার কাছে সহজে পৌঁছে যাবে। কাজেই মাজারে যাওয়া, জেয়ারত করা- আল্লাহর অলিদের তাজিম করা তা আল্লাহর পছন্দনীয় ইবাদত। হযরত মূসা (আঃ) তূর পাহাড়ে যাওয়ার সময় পায়ের সেন্ডেল খুলে যেতে বলেছিলেন। বক্তারা আরো বলেন, আল্লাহর অলিদের সম্মান করা যদি শিরক্ হয় - তাহলে পিতা-মাতাদের সম্মান করা, শিক্ষকদের সম্মান করা কি শিরক্ হবে? আল্লাহর কাছে ঐ ইবাদত সবচেয়ে প্রিয় -যিনি সর্বোচ্চ বিনয়ী হবে, যিনি আল্লাহকে সর্বোচ্চ বড় মনে করবে এবং আল্লাহর পক্ষ থেকে স্বীকৃতি প্রাপ্ত ইবাদত হবে। সংলাপ অনুষ্ঠানে আলোচকরা প্রাসঙ্গিক নানা বিষয়ে শ্রোতাদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। সভায় মাইজভাণ্ডারী একাডেমির সদস্যসহ বিশিষ্ট জনদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ওয়ান ব্যাংক লিমিটেডে এর পরিচালক আলহাজ্ব সৈয়দ নুরুল আমিন, সৈয়দ বদিউজ্জামান মাইজভাণ্ডারী, পিপলস্ ইন্সুরেন্স কোং এর নির্বাহী পরিচালক জনাব সিরাজুল মোস্তাফা, আশেকানে আউলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আল্লামা খায়রুল বশর হক্কানী, মৌলানা মাহমুদুল হক তালুকদার, অধ্যাপক্ষ মোহাম্মদ গোফরান প্রমুখ। বিপুল সংখ্যক শ্রোতা রূহানী সংলাপে উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd