ঢাকা : শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পবিত্র আশুরা ১০ সেপ্টেম্বর          ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর, ২০১৫ ১৩:০৯:১৬
চট্টগ্রামে দানোওম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসব সমাপ্ত
বক্তব্য রাখছেন জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন ও ড. প্রণব কুমার বড়ুয়া


 

চট্টগ্রাম মহানগর সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহার ও বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের উদ্যোগে গতকাল ৩ নভেম্বর স্থানীয় জে এম সেন হল প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী ধর্মীয় ভাবগাম্বীযে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎস উপ-সংঘনায়ক অধ্যাপক বনশ্রী মহাথেরর সভাপতিত্বে ও মিথুন বড়ুয়ার সঞ্চালনায় এবং ভদন্ত সুনন্দপ্রিয় ভিক্ষু, ভদন্ত সত্যানন্দ ভিক্ষুর মঙ্গলাচরণের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন আওয়ামীলীগ উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ড: প্রনব কুমার বড়ুয়া, ধর্মসভায় ধর্মালোচনা করেন অনুষ্ঠানের প্রধান জ্ঞাতী বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষ মহাসভার সভাপতি সদ্ধর্মরশ্মি রতনশ্রী মহাথের, ধর্মদেশনা করেন ভিক্ষু মহাসভার সাধারণ সম্পাদক বোধিমিত্র মহাথের, ভদন্ত শিলভদ্র মহাথের, আর্যকীর্তি মহাথের, অধ্যাপক বিপুলানন্দ মহাথের, দেবানন্দ মহাথের, অম্রিতানন্দ থের, সুবিতানন্দ মহাথের, অধ্যাপক উপানন্দ মহাথের, ঈদ্দিপঞঞা থের, প্রজ্ঞমিত্র থের, বিদর্শনাচার্য আর্যশ্রী থের, সংঘশ্রী ভিক্ষু, করুনানন্দ থের, দীপানন্দ থের, দেববংশ ভিক্ষু, সুপায়ানন্দ ভিক্ষু, রাহুলানন্দ ভিক্ষ, স্বাগত ভাষন প্রদান করেন- বিহারধ্যক্ষ এস শাসনবংশ থের, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন- মৃদুল কান্তি চৌধুরী, প্রকৌশলী বিধান চন্দ্র বড়ুয়া, স্বদেশ কুসুম চৌধুরী, বিনয় ভুষণ বড়ুয়া, ত্রিদ্বীপ কুমার বড়ুয়া, উত্তম কুমার বড়ুয়া, সত্যেন্দ্রনাথ বড়ুয়া, অনিমেষ বড়ুয়া, আদর্শন বড়ুয়া, প্রবীর বড়ুয়া মানু, শংকর বড়ুয়া, রুপম বড়ুয়া, বসুমিত্র বড়ুয়া, নন্দন বড়ুয়া প্রমুখ।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। যেখানে হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টানসহ নানা জাতিগোষ্ঠী সুপ্রাচীনকাল থেকেই একত্রে বসবাস করছে এবং পারস্পরিক সব সুখ-দুঃখের অংশীদার হয়ে সহাবস্থান করছে। বাংলাদেশ নানা ধর্মীয়, সামাজিক ও কৃষ্টি ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ। আবহমানকাল ধরে সকল ধর্ম ও মতের অনুসারীরা তাদের নিজ নিজ ধর্মীয় ও সামাজিক প্রথা, অনুষ্ঠান ইত্যাদি সুশৃঙ্খলভাবে পালন করে আসছেন। বর্তমান সরকার দেশে বিরাজমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করা এবং বাংলাদেশকে বিশ্বসভায় একটি শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে বদ্ধপরিকর।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ড: প্রনব কুমার বড়ুয়া বলেন, থেরবাদী বৌদ্ধদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব হলো কঠিন চীবর দানোৎসব। এ দানোৎসবের ধর্মীয়, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক গুরুত্ব অত্যন্ত তাৎপর্যমন্ডিত। এটা এমন একটি দান, যে দান ভিক্ষু সমাজকে উন্নত করে, বুদ্ধশাসনের শ্রীবৃদ্ধি করে, গৃহীসমাজকে উন্নত করে এবং সর্বপ্রাণীর কল্যাণ সাধন করে।
ধর্ম সভায় পঞ্চশীল প্রার্থনা করেন- অলক বড়ুয়া বিটু, চীবর দান শেষে রূপম মুৎসুদ্দী ঠিটুর পরিচালনায় নিবেদন শিল্পী সংসদের পরিবেশনায় গীতি আলেখ্য “অহিসা পরম ধর্ম” অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd