ঢাকা : সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • ডেঙ্গু এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে : কাদের          ঈদে হাসপাতালের হেল্প ডেস্ক খোলা রাখার নির্দেশ          নবম ওয়েজ বোর্ডের ওপর হাইকোর্টের স্থিতাবস্থা           বন্দরসমূহের জন্য ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি, ২০১৬ ১৬:০৯:১৩
গাউসুল আয ম হযরত সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারীর উরস উপলক্ষে কর্মসূচি
চট্টগ্রাম সংবাদদাতা
সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন এস জেড এইচ এম ট্রাস্টের সচিব এ এন এম এ মোমিন


 


গাউসুল আয ম হযরত সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারীর উরস শরিফ উপলক্ষে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের পক্ষ থেকে দশদিন ব্যাপী কল্যাণমূলক কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।
সোমবার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ট্রাস্টের সচিব এ এন এম এ মোমিন। সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ট্রাস্টের মিডিয়া এডভাইজার কবি-সাংবাদিক নাজিমুদ্দিন শ্যামল, মাসিক আলোকধারার সহকারী সম্পাদক মাওলানা মোহাম্মদ শায়েস্তা খান আজহারী, ট্রামেস্টর সমন্বয় কর্মকর্তা তানভীর হোসাইন। লিখিত বক্তব্যে ট্রাস্টের সচিব এ এন এম এ মোমিন বলেন, উপমহাদেশের প্রখ্যাত আধ্যাÍ সাধক ও বাংলাদেশে প্রবর্তিত ত্বরিকা, ত্বরিকা-ই-মাইজভাণ্ডারীয়ার প্রবর্তক গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারীর (ক.) ১১০তম উরস শরিফ উপলক্ষে ১০ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (ক.) (এস জেড এইচ এম) ট্রাস্ট।
তিনি দশ দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করে বলেন, এমন যুগ সন্ধিক্ষণে হযরত সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভাণ্ডারী আবির্ভূত হন যখন সমগ্র বিশ্বে সাম্প্রদায়িকতার বিষবা®প, বস্তুতান্ত্রিকতা, বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রা, সাম্রাজ্যবাদী শক্তির চূড়ান্ত প্রকাশ ও বিকাশ, নাস্তিকতাবাদের বিভিন্ন শাখা প্রশাখার মধ্যে ডারউইনবাদ, মার্কসবাদ, উগ্র জাতীয়তাবাদ ইত্যাদি মতাদর্শের চাপে মানুষ দিশেহারা। এই ক্রান্তিকালে গাউসুল আযম আহমদ উল্লাহ এ সবের বিপরীতে পবিত্র কুরআন ও হাদিসের আলোকে ইসলাম ধর্মের মূল শিক্ষা নতুন রূপে প্রচার ও প্রকাশ করেন। তার শিক্ষার অন্যতম দিক হলো বিশ্বের সকল মানুষ, সে যে ধর্মের লোকই হোক না কেন, সে আদম সন্তান, তাই সে আমার ভাই। এভাবে তিনি সমাজে অসাম্প্রদায়িকতা ও বিশ্বভ্রাতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেন।
ট্রাস্টের ১০ দিনের কর্মসূচি হলো: দশদিন ব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, ১৪ জানুয়ারি মাইজভাণ্ডার ‘শরিফে ধর্মীয় শিক্ষা ও ধর্ম নিরপেক্ষ শিক্ষার সমন্বয়ে শিক্ষকদের করণীয়’ শীর্ষক শিক্ষক সমাবেশ, ১৫ জানুয়ারি সকালে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘শিশু কিশোর সমাবেশ’ এবং মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রিয় পর্ষদ নিয়ন্ত্রণাধীন শাখা কমিটি সমূহের ব্যবস্থাপনায় স্ব স্ব এলাকার মসজিদে কুরআন তেলাওয়াত ও মিলাদ মাহফিল, ১৬ জানুয়ারি সকালে মুসলিম হলে ১৪ পর্বে যাকাত বিতরণ কর্মসূচি, ১৭ জানুয়ারি সকাল ১১টায় নগরীর বিবিরহাট ট্রাস্ট মিলনায়তনে ২০১৫ পর্বের বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মাঝে বৃত্তির অর্থ প্রদান অনুষ্ঠান এবং বিকেলে চট্টগ্রাম থিয়েটার ইন্স্টিটিউটে ‘আধুনিক বিশ্বে তাসাওউফ বিজ্ঞান চর্চায় বেলায়তে মোত্লাকা পুস্তকের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনার, ১৮ জানুয়ারি বিকেলে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ‘বর্তমান বিশ্বে মুসলিম ঐক্য প্রতিষ্ঠায় ইসলামী শিক্ষার দিক-নির্দেশনা’ শীর্ষক উলামা সমাবেশ, ১৯ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় নগরীর বিবিরহাট ট্রাস্ট মিলনায়তনে ‘ইসলামের আলোকে আধুনিক সংস্কৃতি ও পারিবারিক জীবন’ শীর্ষক মহিলা মাহফিল, ২০ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় চট্টগ্রাম মুসলিম ইন্স্টিটিউট হলে ‘বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় অসাম্প্রদায়িক চেতনার গুরুত্ব’ শীর্ষক ‘আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মিলন’, ২১ জানুয়ারি সকাল ৯টায় এস জেড এইচ এম ট্রাস্ট নিয়ন্ত্রণাধীনে পরিচালিত সকল শি∂া প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের র‌্যালী, ২২ জানুয়ারি ফটিকছড়ি উপজেলার ৫৫টি রেজিস্টার্ড এতিমখানাসমুহের শিক্ষার্থীদের একবেলা খাবার সরবরাহ, ২৩ জানুয়ারি জাতীয় দৈনিকে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ, ইসলামের ইতিহাস এবং ঐতিহ্য সম্বলিত দুর্লভ চিত্র ও ভিডিও প্রদর্শনী, উপদেশমূলক, দিক-নির্দেশনা সম্বলিত প্রচার, বিশুদ্ধ পানীয় জলের ব্যবস্থা, অস্থায়ী টয়লেটের ব্যবস্থা এবং ২৪ জানুয়ারি সকাল ৭টায় প্রধান সড়ক হতে হযরত গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর পুকুর পাড় এবং মন্জিল এলাকায় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd