ঢাকা : বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ২১ জানুয়ারি, ২০১৬ ১১:৪৩:৩৮
সকল ধর্মের মিলন কেন্দ্র মাইজভাণ্ডার : চবি উপাচার্য
চট্টগ্রাম সংবাদদাতা
সম্প্রীতি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী


 


প্রত্যেক ধর্মের মৌলিক বিষয় হল জ্ঞান। যা আনেক বছর আগেই বলে গেছেন সক্রোটিস। সেটিই প্রকৃত জ্ঞান দেয়। আর এই জ্ঞানের কথায় বলেছেন মাইজভাণ্ডারী। মানুষকে শিক্ষা দেওয়ায় মাইজভাণ্ডারী আর একটি দর্শন। মাইজভাণ্ডারী শরীফের প্রত্যেকটি কর্মকাণ্ডই সমাজ ও মানুষের কল্যাণের জন্য। যে সকল মাইজভাণ্ডার শরীফের অধীনে স্কুল ও মাদ্রাসা রয়েছে সেগুলোতে অসম্প্রদায়িক চিন্তা-চেতনা থেকে শিক্ষা দেওয়ায় হয়। সকল ধর্মেই প্রেমের কথা বলা হয়েছে। প্রেম ও মানবতাবাদের কোন ধর্ম-বর্ণের বিভেদ নাই। বিভেদ সৃষ্টি করেছে মানুষ। ধর্মের অপব্যাখ্যা ও ধর্মের নামে বিভেদ থেকে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে রক্ষা করতে মাইজভাণ্ডারীর আদর্শ ধারণ করতে হবে।
২০ জানুয়ারি চট্টগ্রাম নগরীর মুসলিম হলে মাইজভাণ্ডারী একাডেমী কর্তৃক আয়োজিত আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মেলনে এসব কথা বলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। প্রফেসর ড. অঞ্জন কুমার চৌধুরীর সঞ্চালনায় ও ইউএসটিসি এর উপাচার্য প্রফেসর ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়–য়ার সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চবির আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. জাফর উল্লাহ, চট্টগ্রাম বৌদ্ধ সমিতির চেয়ারম্যান অজিত রঞ্জন বড়–য়া, চট্টগ্রাম অখন্ড মন্ডলীর সাধারণ সম্পাদক শ্রী ধনঞ্জয় বর্ধন, চট্টগ্রাম এজিচার্চ এবং পুরোহিত রেভারেড মৃণাল বাড়ৈ, চট্টগ্রাম শিলাচক্র ও সেবায়েত গ্রন্থ সাহেব শ্রী গৌরাঙ্গ সিং, চট্টগ্রাম অখন্ড মন্ডলীর সভাপতি চিত্ত প্রসাদ তালুকদার, বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা রাঙ্গুনিয়ার সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ জহুরুল আনোয়ার, চবি আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ হোসাইন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য প্রদান করেন মাইজভাণ্ডারী একাডেমির সহ-সভাপতি আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মিলন উদ্যাপন পরিষদ আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পাঁচ ধর্মের গ্রন্থ থেকে পবিত্রবাণী ও হামদ্-নাত পাঠ করে শুনানো হয়। এর আগে বিশ্বঅলি শাহান শাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের বিগত বছরের কার্যক্রমগুলো স্লাইড শো’র মাধ্যমে তুলে ধরা হয়।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd