ঢাকা : শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০

সংবাদ শিরোনাম :

  • একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দক্ষ প্রকৌশলীর বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি          রাজধানীর ৬৪ স্থানে বাস স্টপেজ নির্মাণ হবে : কাদের          ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ৩ কোটি যুবকের কর্মসংস্থানের হবে : অর্থমন্ত্রী          দ্বীপ ও চরাঞ্চলে পৌঁছাচ্ছে ইন্টারনেট           সরকারি ব্যয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৬ ১০:৩৩:৩২
সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের কর্মসূচি
চট্টগ্রাম সংবাদদাতা


 


ত্বরিকায়ে মাইজভাণ্ডারীয়ার প্রবর্তক বিশ্ব সমাদৃত সূফি সাধক গাউসুল আযম হযরত শাহসূফি মাওলানা সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) ১১০তম উরস শরিফ উপলক্ষে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ) ট্রাস্ট ১০ দিনব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করে। এসব কর্মসূচির মধ্যে ছিল (১) ‘ধর্মীয় শিক্ষা ও ধর্ম নিরপেক্ষ শিক্ষার সমন্বয়ে শিক্ষকদের করণীয়’ শীর্ষক ‘শিক্ষক সমাবেশ’ (২) শিশু-কিশোর সমাবেশ এবং মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রিয় পর্ষদ নিয়ন্ত্রণাধীন শাখা কমিটি সমূহের ব্যবস্থাপনায় স্ব স্ব এলাকার মসজিদে কুরআন তেলাওয়াত ও মিলাদ মাহফিল (৩) ১৪ পর্বের যাকাত বিতরণ কর্মসূচি (৪) ২০১৫ পর্বের বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মাঝে বৃত্তির অর্থ প্রদান অনুষ্ঠান এবং ‘আধুনিক বিশ্বে তাসাওউফ বিজ্ঞান চর্চায় বেলায়তে মোত্লাকা পুস্তকের ভূমিকা’ শীর্ষক সেমিনার (৫) ‘বর্তমান বিশ্বে মুসলিম ঐক্য প্রতিষ্ঠায় ইসলামী শিক্ষার দিক-নির্দেশনা’ শীর্ষক উলামা সমাবেশ (৬) ‘ইসলামের আলোকে আধুনিক সংস্কৃতি ও পারিবারিক জীবন’ শীর্ষক মহিলা মাহফিল (৭) ‘বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় অসাম্প্রদায়িক চেতনার গুরুত্ব’ শীর্ষক ‘আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মিলন’ (৮) ট্রাস্ট নিয়ন্ত্রণাধীনে পরিচালিত সকল শি∂া প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের র‌্যালী (৯) ফটিকছড়ি উপজেলার ৫৫টি এতিমখানার নিবাসীদের জন্যে একবেলা খাবার প্রদান (১০) উরসের দিন বিশুদ্ধ পানিয় জল সরবরাহ, অস্থায়ী টয়লেট স্থাপন, ইসলামের ইতিহাস ও ঐতিহ্য সম্মলিত স্থির ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী এবং পরদিন পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান। উরসের পরদিন ২৪ জানুয়ারি রবিবার সকাল ৬টায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয় ১০ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালা।
এ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন ট্রাস্ট সচিব এ এন এম এ মোমিন ও কর্মকর্তাগণ এবং কেন্দ্রিয় পর্ষদ ঘরানার বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। ‘আমি বিশ্বমানবতার সেবক’ ¯ে−াগান সম্বলিত টি-শার্ট পরিহিত শতাধিক স্বেচ্ছাসেবী এ কর্মে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন। কর্মসূচির আওতা ছিল মাইজভাণ্ডার শরিফ প্রধান সড়ক হতে গাউসিয়া আহমদিয়া মন্জিল, গাউসিয়া রহমান মন্জিল এলাকাসহ গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর কিংবদন্তির রওজা পুকুরের চারপাশ।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
ধর্মতত্ত্ব পাতার আরো খবর

Developed by orangebd