ঢাকা : মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পণ্য মজুদ আছে, রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চায় সরকার          অর্থনৈতিক উন্নয়নে সব ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী          বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৮:০৮:০১
যানজটের শহর নবীগঞ্জ
নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) সংবাদদাতা


 


যানজটের শহরে পরিণত হয়ে গেছে নবীগঞ্জ। নবীগঞ্জ পৌর শহরে প্রতিদিনই যানজটের ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পথচারী ও অসহায় মানুষজন। এদিকে নিয়মনীতি তোয়াক্কা করছেন না গাড়ীর মালিক-শ্রমিকরা। প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় পৌর শহরের বিভিন্ন সড়কে যত্রতত্র স্থানে ব্যাঙ্গের ছাতার মতো গড়ে তুলেছেন সিএনজি অটোরিক্সা, টমটম ও মিনি বাসের অবৈধ স্ট্যান্ড।
এছাড়া শহরের বিভিন্ন স্থানে মেইন রাস্তার উপর বড় বড় ট্রাক দার করিয়ে লোড, আনলোড করা হয় ধান-চালসহ বিভিন্ন মালামাল। রাস্তার উভয় পাশে দাড়িয়ে থাকে সিএনজি। এতে প্রতিদিনই লাগছে যানজট, এতেই বাড়ছে ভোগান্তি। এতে জনমণে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে এটি নিরসনের দায়িত্ব কার..? এসব দেখার কি কেউ নেই..? পৌর কতৃপক্ষ নিরব কেন.? এসব যেন পৌর কর্তৃপক্ষের নজড়ে আসছেনা। পৌর কর্তৃপক্ষের রহস্যজনক নিরব ভূমিকা নিয়েও সচেতন মহলে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে অনেকেই জানিয়েছেন, বর্তমান সরকারকে জনমনে প্রশ্নবৃদ্ধ করতেই শহরের যানজট নিয়ে নীরব ভুমিকা পালন করছেন বিএনপি সমর্থিত মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরী। এর আগে আওয়ামীলীগ সমর্থিত মেয়র অধ্যাপক তোফাজ্জল ইসলাম চৌধুরী শহরের যানজট নীরসনে কাজ করেছেন। প্রতিদিন অবৈধ দোকান পাঠ, গাড়ী পার্কিংসহ শহরের অলিগলিতে কাচা মালের দোকান বসতে দেন নি। প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা করে সাধারণ মানুষের চলাচলের উপযোগী রেখেছেন।
শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা গেছে, থানার পয়েন্ট, ওসমানী রোড (উত্তরা ব্যংকের সামন), হাসপাতাল সড়কের খালিক মঞ্জিলের সামন, হাসপাতালের গেইটের নিকট, শেরপুর রোডের রাজা কমপ্লেক্সের সামন, শেরপুর রোডের বাংলা টাউনস্থ ইসলামী ব্যংকের সামন, রুদ্রগ্রাম রোডের সোনার খনি-ব্রীজ পর্যন্ত, এছাড়াও শহরের নতুন বাজার মোড়, প্রায় সময়ই প্রধান সড়কের উপর দাড়ানো থাকে সাড়ি সাড়ি ছোট বড় গাড়ী। এ সময় পথচারীদের চলাচলে মারাত্মক ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে।
অপর দিকে অভিযোগ আছে, শহরে যানজটের কারন হলো এক শ্রেনীর ব্যবসায়ীরা নিজের স্বার্থের জন্য মালবাহী ট্রাক-ট্রাক্টর দিনদুপুরে রাস্তার উপর দাড় করিয়ে মালামাল লোড-আনলোড করিয়ে থাকেন। এতেও যানজট ব্যাপক ভাবে বেড়ে যায়।
এ ব্যাপারে আইন শৃংখলা কমিটির মিটিংয়ে শহরের যানজট নিরসনের জন্য একাধিকবার আলোচনা হয়েছে। ওই মিটিংয়ে যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ও উদ্যোগ নেয়ার জন্য পৌর মেয়র’কে তাগিদ দেয়া হয়েছে। কিন্তু  তা বাস্তবায়ন হয়নি আজও। গত আইন শৃংখলা কমিটির মিটিংয়ে যানজট নিরসনের জন্য পৌর কতৃপক্ষকে দায়ী করা হয়।
পৌর নাগরিকরা জানান, যানজট নিরসনে পৌর কর্তৃপক্ষ নিরব ভূমিকা পালন করছেন। প্রয়োজনীয় কোন ব্যাবস্থা গ্রহন না করায় পৌরবাসীর মধ্যে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। নবীগঞ্জ শহরকে যানজটমুক্ত করণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানিয়েছে শহরবাসী।
এব্যাপারে পৌর মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরী বলেন আমরা প্রশাসনের সহযোগিতা পেলে যানজট নিরশনের ব্যবস্থা করবো। অচিরেই ফুটপাত উচ্ছেদ করে যানজট নিরশন করা হবে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
বিশেষ প্রতিবেদন পাতার আরো খবর

Developed by orangebd