ঢাকা : সোমবার, ২৫ মে ২০২০

সংবাদ শিরোনাম :

  • একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দক্ষ প্রকৌশলীর বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি          রাজধানীর ৬৪ স্থানে বাস স্টপেজ নির্মাণ হবে : কাদের          ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ৩ কোটি যুবকের কর্মসংস্থানের হবে : অর্থমন্ত্রী          দ্বীপ ও চরাঞ্চলে পৌঁছাচ্ছে ইন্টারনেট           সরকারি ব্যয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ০৬ মার্চ, ২০১৭ ১৮:২৪:৪৫আপডেট : ০৬ মার্চ, ২০১৭ ১৮:২৫:৪১
বিশ্বে পরিবেশ দূষণে প্রতি বছর ১৭ লাখ শিশুর মৃত্যু
টাইমওয়াচ ডেস্ক


 

পৃথিবীর পাঁচ বছরের নিচেশিশুর মৃত্যুর মধ্যে এক চতুর্থাংশই মারা যায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, পানি দূষণ, বায়ু দূষণ বা পরিবেশ দূষণের কারণে সৃষ্ট বিভিন্ন রোগে।
৩ মার্চ সোমবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) তরফ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, প্রতিবছর এসব রোগে ১৭ লাখ শিশুর মৃত্যু হচ্ছে। অস্বাস্থ্যকর এবং দূষিত পরিবেশের কারণে শিশুরা ডায়রিয়া, ম্যালেরিয়া, নিউমোনিয়ার মতো রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক মার্গারেট চ্যান এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, দূষিত পরিবেশ শিশুদের জন্য খুবই বিপজ্জনক। নোংরা পরিবেশ এবং দূষিত পানির কারণে শিশুদের অঙ্গ প্রত্যঙ্গের বিকাশ এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ঝুঁকিতে থাকে।
শিশুরা বাড়িতে বা বাড়ির বাইরে বিভিন্ন ধরনের দূষণের কারণে বিপজ্জনক রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দূষিত পানি থেকে ডায়রিয়া, কলেরার মতো রোগে আক্রান্ত হচ্ছ এবং দূষিত বাতাস থেকে অ্যাজমা, শ্বাসকষ্ট, ক্যান্সার, হৃদযন্ত্রের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।
 
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়েছে, নিরাপদ পানি এবং স্যানিটেশনের অভাব, রান্নার কাজে ব্যবহৃত চুলার ধোঁয়া থেকে শিশুদের ডায়রিয়া এবং নিমোনিয়া হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। খাবার, পানি এবং বিভিন্ন দ্রব্যের মধ্যে থাকা রাসায়নিক দ্রব্য থেকেও রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গণস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ মারিয়া নেইরা জানিয়েছেন, প্রতিবছর দূষণের কারণে সৃষ্ট রোগে শিশু মৃত্যুর এই হার আশঙ্কাজনক। প্রতিটি স্থানকে শিশুদের জন্য নিরাপদ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তিনি বিভিন্ন দেশের সরকারকে আহ্বান জানিয়েছেন।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর

Developed by orangebd