ঢাকা : সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • ডেঙ্গু এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে : কাদের          ঈদে হাসপাতালের হেল্প ডেস্ক খোলা রাখার নির্দেশ          নবম ওয়েজ বোর্ডের ওপর হাইকোর্টের স্থিতাবস্থা           বন্দরসমূহের জন্য ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ০২ এপ্রিল, ২০১৭ ১৮:৩৩:০৫
ইনশাআল্লাহ আমরা আবার ক্ষমতায় আসতে পারবো
টাইমওয়াচ রিপোর্ট


 

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, যুব সংহতি আমার দ্বিতীয় সন্তান। এই যুব সংহতিকে ভিত্তি করে গড়ে ওঠল জাতীয় পার্টি। জাতীয় পার্টি হওয়ার কারণে আমরা ক্ষমতায় আসছিলাম।  তোমরা শক্তিশালী হও, সংগঠিত হও, ইনশাআল্লাহ আমরা আবার ক্ষমতায় আসতে পারবো।
২ এপ্রিল রবিবার রাজধানীর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে জাতীয় যুব সংহতির কেন্দ্রীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন তিনি।
 
জাপা চেয়ারম্যান বলেন, তরুণ যুবকরা আজ হতাশায় নিমগ্ন। কর্মসংস্থান নাই, আস্তে আস্তে পুরো জাতি-যুবসমাজ মাদকদ্রব্যে নিমজ্জিত হচ্ছে। ইয়াবা, ফেনসিডিল ইত্যাদি দ্বারা তারা হারিয়ে যাচ্ছে। আমাদের জাতীয় জীবন থেকে তারা আস্তে আস্তে দূরে সরে যাচ্ছে। হতশায় ভুগছে যুবসমাজ। অথচ যুবসমাজ হলো একটা দেশের শক্তি, দেশের ভবিষ্যৎ। সেই ভবিষ্যৎ আস্তে আস্তে অন্ধকারে তলিয়ে যাচ্ছে, আমরা দৃষ্টি দিচ্ছি না। কর্মসংস্থান আমাদের তৈরি করা প্রয়োজন।
 
তিনি বলেন, এই প্রয়োজন মিটাতে না পারলে আমাদের সমস্ত চেষ্টা ব্যর্থ হবে। আমি শুনেছিলাম ঘরে ঘরে চাকরি দেয়ার কথা। এখন কি ঘরে ঘরে চাকরি আছে? চাকরি পেতে হলে কী করতে হয়? ঘুষ দিতে হয়। ঘুষ বাধা আছে, রেট আছে। কনস্টেবলে চাকরি নিতে তিন থেকে পাঁচ লাখ টাকা, প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষকের জন্য ১০ থেকে ২০ লাখ টাকা দিতে হয়। কোথায় পাবে সেই টাকাটা এই গরিব ছেলেটি বা মেয়েটি? আমরা সেদিকে দৃষ্টি দিই না। যেহেতু কর্মসংস্থান নেই, সেহেতু ছোট একটা চাকরি নিতে মানুষকে অনেক ঘুষ দিতে হয়। আমাদের সময় এটা ছিল না। গর্ব করে বলতে পারি আমাদের সময় ঘুষ বাণিজ্য ছিল না।
 
এরশাদ বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের কথা শুনি। সত্যিকারে কি নারীরা আজ নিগৃহীত নয়? ৮৫ ভাগ নারী নির্যাতনের শিকার। প্রতিদিন দেখি নারীরা ধর্ষিত হচ্ছে, আত্মহত্যা করছে, মেরে ফেলা হচ্ছে। এরপর নারীর ক্ষমতায়ন কী করে হয়?
 
জাপা চেয়ারম্যান বলেন, খবরের কাগজে পড়লাম, ৭৫ ভাগ বিবাহিত নারী নিগৃহীত। আমাদের সমাজে অশান্তির সৃষ্টি হয়েছে, কোথাও শান্তি নেই। শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে হলে পরিবর্তনের প্রয়োজন।
 
তিনি বলেন, মালদ্বীপের একটি মেয়ে রাজশাহীতে মেডিকেলে পড়তে এসে আত্মহত্যা করেছে। আসলে মেয়েটি কি আত্ম হত্যা করেছে? নিগৃহীত হয়েছে, ধর্ষিত হয়েছে, এর কারণে হয়তো আত্মহত্যা করেছে। আত্মহত্যা করেনি, তাকে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে এটা আমার বিশ্বাস। সত্যি হতে পারে, নাও হতে পারে। একটা বিদেশি নারী আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে এসে আত্মহত্যা করবে এটা বিশ্বাস করা যায় না।
 
জাপা চেয়ারম্যান বলেন, আমি ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার পর আমার ইতিহাস দুঃখের ইতিহাস। আমি ছয় বছর জেলে ছিলাম, আমার নেতাকর্মীরা জেলে ছিল। কোনো মিছিল মিটিং করতে পারিনি। সমস্ত পার্টি অফিস তালা দেয়া হয়। শান্তিতে ঘুমাতে পারিনি। তবুও আজকে জাতীয় পার্টি বেঁচে আছে কেন? জাতীয় পার্টি জনগণকে ভালোবাসে, দেশের কল্যাণ চায়। আমরা মানুষের অনিষ্ট করিনি, মানুষ হত্যা করিনি, লুণ্ঠন করিনি।  আমরা মানুষের অকল্যাণের জন্য রাজনীতি করিনি। এই জন্য জাতীয় পার্টি মানুষের মনের মধ্যে আছে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
রাজনীতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd