ঢাকা : বৃহস্পতিবার, ২৭ জুলাই ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • পানি না নামা পর্যন্ত বানভাসীদের খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে          ৫৭ ধারা সাংবাদিক হয়রানির জন্য নয় : প্রধানমন্ত্রী          পর্যটনের অপার সম্ভাবনার দেশ বাংলাদেশ : মেনন          তরুণ জনগোষ্ঠীকে দক্ষ করতে যথাযথ প্রশিক্ষণ দিতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী          বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হবে : ত্রাণমন্ত্রী
printer
প্রকাশ : ১৭ জুলাই, ২০১৭ ১৮:০৩:১৭
পানি না নামা পর্যন্ত বানভাসীদের খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে : মায়া
কুড়িগ্রাম সংবাদদাতা


 

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, দেশে কোনো খাদ্য ঘাটতি নেই। কেউ যেন খাদ্যাভাবে বা বিনা চিকিৎসায় মারা না যায় সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন। তিনি গৃহহীন সকলকে গৃহ নির্মাণ করে দিতে বলেছেন। অসহায় দুর্গতদের সত্যিকার তালিকা তৈরি করে সরকার সহায়তা করছে। পানি না নামা পর্যন্ত বানভাসী মানুষদের খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।
 
১৭ জুলাই সোমবার সকালে কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার প্রত্যন্ত ব্রহ্মপুত্র নদের দ্বীপচর শাখাহাতির আশ্রয়ণ প্রকল্প মাঠ এবং উলিপুর উপজেলার চাঁদনী বজরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে বন্যা দুর্গতদের মাঝে পৃথক ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
 
ত্রাণমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি নেত্রী বানভাসীদের পাশে না দাঁড়িয়ে চিকিৎসার নামে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন। আমরা আহ্বান জানাই, আসুন বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ান। আবেদন করলে আপনাদেরকেও ত্রাণ দেয়া সম্ভব।
 
বন্যা দুর্গত এলাকায় এনজিও’র ঋণের কিস্তি আদায় কয়েক মাসের জন্য বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বন্যা দুর্গত মানুষ খুব কষ্টে আছে। তাদের কাছ থেকে সুদসহ ঋণ আদায় সঠিক হবে না।
 
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য রুহুল আমিন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব শাহ কামাল, অতিরিক্ত সচিব খালেদ মাহমুদ, যুগ্ম-সচিব মো. মোহসিন, যুগ্ম-সচিব আলী রেজা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, চিলমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার বীর বিক্রম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা মুরাদ হাসান বেগ, উলিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, বজরা ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল করিম আমিন প্রমুখ।
 
মন্ত্রী চিলমারী উপজেলায় এক হাজার পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে চাল এবং উলিপুর উপজেলার বজরা ইউনিয়নে বন্যা দুর্গত এলাকা পরিদর্শন শেষে চাঁদনী বজরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক হাজার ২০০ বন্য কবলিত পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
জাতীয় পাতার আরো খবর

Developed by orangebd