ঢাকা : বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • সরকার নদীখননের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে : নৌ-পরিবহনমন্ত্রী          দক্ষতা-জ্ঞান-প্রযুক্তির মাধ্যমেই সক্ষমতা অর্জন সম্ভব : পররাষ্ট্রমন্ত্রী           বাংলাদেশে এ বছর রেকর্ড পরিমাণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে          জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত হয়নি : সিইসি          আ.লীগ সরকার ছাড়া কোনো দলই এত পুরস্কার পায়নি : প্রধানমন্ত্রী          মোবাইল ব্যাংকিং সেবার চার্জ কমে আসবে : অর্থমন্ত্রী          রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সু চিকে জাতিসংঘের অনুরোধ
printer
প্রকাশ : ২৫ জুলাই, ২০১৭ ১৩:৩০:০৪
জ্ঞান ও দক্ষতা আয়ত্বে নিয়মিত বই পড়ার আহবান শিক্ষামন্ত্রীর
টাইমওয়াচ রিপোর্ট


 

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, জ্ঞানচর্চা একটি জীবনভর প্রক্রিয়া। পাঠ্যবইয়ের বাইরে জাতীয়ভাবে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। জ্ঞান ও দক্ষতা আয়ত্ব করতে বই পড়ার কোন বিকল্প নেই।
২৫ জুলাই মঙ্গলবার রাজধানীর বাংলামটরে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচির ঢাকা বিভাগের সেরা সংগঠক-২০১৬ সম্মাননা পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন তিনি।
‘নতুন প্রজন্মকে নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে। আমরা ভাল মানুষ তৈরি করতে চাই এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাঠাভ্যাস গড়ে তোলার মাধ্যমেই নিজেকে বিকশিত করা সম্ভব।’ তিনি ছাত্র-শিক্ষক সবাইকে নিয়মিত পড়ার অভ্যাস গড়ে তোলার আহবান জানান।
সেকায়েপ প্রকল্প পরিচালক ড. মো. মাহামুদ-উল-হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামান, পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচির টিম লিডার অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সায়ীদ ও কো-টিম লিডার শরীফ মো. মাসুদ বক্তৃতা করেন।
উল্লেখ্য, সেকায়েপ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের ২৫০টি উপজেলায় ১২ হাজার স্কুলে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসুচি বাস্তবায়িত হচ্ছে। এর মাধ্যমে ২০১০ সাল থেকে ২০১৬ পর্যন্ত ৬১ লাখ শিক্ষার্থী বই পড়ার সুযোগ পেয়েছে। ২০১৭ সালে আরো ২১ লাখ ছেলেমেয়ে বই পড়া কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করে। গত ৭ বছরে এ প্রকল্পের অধীনে ৩৪ লাখ বই পুরস্কার হিসেবে ছাত্রছাত্রীদের দেয়া হয়েছে।
এ কর্মসৃচির সেরা সংগঠক হিসেবে এবছর ১ হাজার ১৮৪ জনকে সম্মাননা দেয়া হয়েছে। ঢাকা বিভাগের ১৭৫ জন সংগঠক আজ এ পুরস্কার পাচ্ছেন। ঢাকা বিভাগের ৪৪টি উপজেলার ১৭৫ জন লাইব্রেরিয়ান/শিক্ষক সেরা সংগঠক নির্বাচিত হয়েছেন।
সেকায়েপ ও বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
শিক্ষা পাতার আরো খবর

Developed by orangebd