ঢাকা : বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • মেক্সিকোতে ভূমিকম্প : নিহত ২৪৮          রোহিঙ্গাদের ব্যাপার ঐক্যবদ্ধ হতে ওআইসি’র প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান          দু-এক দিনের মধ্যে চালের দাম কমবে : বাণিজ্যমন্ত্রী          রোহিঙ্গাদের প্রতি আন্তরিকতার কমতি নেই : ওবায়দুল কাদের          রোহিঙ্গারা ক্যাম্প ত্যাগ করলে অবৈধ বলে গণ্য হবেন : আইজিপি          রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ নৈতিক সাফল্য অর্জন করেছে : রুশনারা আলী
printer
প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৭ ১৪:৫৭:৩২
কালীগঞ্জ ইউএনও’র ডিজিটালাইজড উদ্যোগ
ঝিনাইদহ সংবাদদাতা


 


ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে শিক্ষা ব্যবস্থাকে আধুনিকায়ন ও শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল পাঠ দানের মাধ্যমে মেধাবী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ছাদেকুর রহমান। এজন্য তিনি প্রতিদিন কোন না স্কুল পরিদর্শন করছেন। সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে মতবিনিময় করছেন। ইতিমধ্যে তিনি ৪ টি কলেজ ও ৯টি  মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় এনেছেন। এসব স্কুল ও কলেজে মাল্টিমিডিয়া পদ্ধতির মাধ্যমে ক্লাস নেয়া হচ্ছে।  

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ছাদেকুর রহমান বলেন, মান সম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়কে সামনে রেখে তিনি স্কুল-কলেজকে ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় আনার এ উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি বলেন, এটা মান সম্মত শিক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের উদ্যোগকে ত্বরান্বিত করবে। ইতিমধ্যে তিনি ৪ টি কলেজ ও ৯ টি মাধ্যিমিক বিদ্যালয়সহ মোট ১৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় এনেছেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে আরো ৫/৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় আসবে। খুলনা বিভাগের মধ্যে শুধুমাত্র কালীগঞ্জ উপজেলায় এ উদ্যোগের ব্যাপকতা বেশি পেয়েছে।

তিনি আরো জানান, গত মাসের আইসিটি সভার প্রতিটি বিদ্যালয়কে ডিজিটালাইজড করার সিদ্ধান্ত মোতাবেক অল্প কয়েকদিনের মধ্যে ১৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ডিজিটালাইজডের আওতায় এনেছি। বাকি অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোকে পর্যায়ক্রমে ডিজিটালাইজডের আওতায় আনা হবে। এ কর্মকা- অব্যাহত থাকবে এবং শতভাগ সম্পন্ন করবেন বলে তার পরিকল্পনা রয়েছে।

এ পর্যন্ত যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি ডিজিটালাইজের আওতায় এসেছে সেগুলি হলো মাহতাব উদ্দীন ডিগ্রি কলেজ, শহীদ নুর আলী ডিগ্রি কলেজ, আলহাজ্ব আমজাদ আলী ও ফাইজুর রহমান মহিলা কলেজ, চাপরাইল মকছেদ আলী কলেজ, সরকারি নলডাঙ্গা ভুষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বেজপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যায়ন, মোবারকগঞ্জ সুগার মিল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, দুলাল মুন্দিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রোস্তম আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাটবারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বেলাট দৌলতপুর মাদ্রাসা, বারবাজার মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) একযোগে উপজেলার ১১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির শুভ উদ্বোধন করেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল আজীম আনার। সে সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) আসাদুজ্জামান, উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর সিদ্দিক ঠান্ডু, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানসহ উপস্থিত অতিথিবৃন্দ।

কালীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এসএম কামরুজ্জামান বলেন, উপজেলায় ৫০ টি মাধমিক বিদ্যালয়, ২৫ টি মাদ্রাসা ও ১১ টি কলেজসহ মোট ৮৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে। সেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইউএনও স্যার ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় আনছেন। ইতিমধ্যে ১৩ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় এসেছে। স্থানীয় এমপি, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত থেকে সেগুলি উদ্বোধন করেছেন। বাকিগুলি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
হাটবারবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বলেন, ইউএনও ছাদেকুর স্যার শিক্ষার বিষয়ে খুবই আন্তরিক। তিনি প্রতিদিন কোন না কোন স্কুল পরিদর্শন করেন। সার্বক্ষনিক শিক্ষার বিষয়ে খোঁজ-খবর রাখেন। তার পরামর্শে আমাদের বিদ্যালয়টিও ডিজিটাল হাজিরা পদ্ধতির আওতায় এনেছি।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
শিক্ষা পাতার আরো খবর

Developed by orangebd