ঢাকা : বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • মেক্সিকোতে ভূমিকম্প : নিহত ২৪৮          রোহিঙ্গাদের ব্যাপার ঐক্যবদ্ধ হতে ওআইসি’র প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান          দু-এক দিনের মধ্যে চালের দাম কমবে : বাণিজ্যমন্ত্রী          রোহিঙ্গাদের প্রতি আন্তরিকতার কমতি নেই : ওবায়দুল কাদের          রোহিঙ্গারা ক্যাম্প ত্যাগ করলে অবৈধ বলে গণ্য হবেন : আইজিপি          রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ নৈতিক সাফল্য অর্জন করেছে : রুশনারা আলী
printer
প্রকাশ : ২০ আগস্ট, ২০১৭ ১২:০৫:০৬আপডেট : ২০ আগস্ট, ২০১৭ ১২:০৬:২১
ঈদের ধারাবাহিক ফান্দে পড়িয়া বগা কান্দে
টাইমওয়াচ ডেস্ক

 

মাস পেরোলেই ঈদ, আর ঈদের বিনোদন এর একটা রড় জায়াগা জুড়ে আছে বিভিন্ন চ্যানেলে ঈদের নাটক। ঈদ ঘিরে নাট্যনির্মাতা, কলাকৌশলী,  প্রযোজনা প্রতিষ্ঠারগুলো ভীষন ব্যস্ত সময় পাড় করছেন। গল্পের প্রয়োজনে আর দর্শকের বিনোদনের মাত্রা আরোও বাড়িয়ে দিতে শুধু দেশে না দেশের বাইরেও সুন্দর সুন্দর লোকেশনে নাটক নির্মাণ হচ্ছে।
বেশ বড় ইউনিট নিয়ে  নেপালে “ফান্দে পড়িয়া বগা কান্দে” ধারাবাহিক নাটকের শুটিং শেষ করলেন নির্মাতা আর বি প্রিতম । নাটকটি প্রচারিত হবে দিপ্তটিভিতে আসছে ঈদের অনুষ্ঠান মালায়। গল্পে বিচ্ছেদের  আগে যুবায়ের , অনু কয়েকটা দিন নিজেদের মত কাটানোর জন্য নেপাল ঘুরতে যায়। এয়ারপোর্টে নেমেই তাদের  লাগেজ অদল বদল হয় আরফান এর লাগেজের সাথে, এই সূত্র ধরেই পরিচয় হয় আরফান এর সাথে, যে কিনা মুনতাসির কে নিয়ে বেচেলর ট্রিপে এসেছে। ঘোরা ঘুরি করতে করতে তাদের সাথে পরিচয় হয় নেপালে থাকা বিজনেস ওম্যান আয়েশা এর সাথে। আর মুনতাসির সাথে পরিচয় হয় দেশের সেলিব্রেটি নাবিলার সাথে। নাবিলা তার ব্যক্তিগত জীবনের ঝামেলার কারণে বন্ধু আরিফের সাথে ঘুরতে এসেছে। এভাবে চলতে চলতে একদিন আয়েশা তার বাসায় দাওয়াত করে আফরান , মুনতাসির আর যুবায়ের কে। যেখানে গিয়ে তারা বুঝতে পারে তারা এক চক্রের ফাঁদে পড়েছে। এরপর নানা ঘটনার মধ্যে দিয়ে গল্পের কাহিনী এগিয়ে চলে। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছিলেন আর.বি প্রীতম, অভিনয় করেছেন ইরেশ যাকের, শবনম ফারিয়া, সাজু খাদেম, আফরান, নাবিলা ইসলাম, সানজিদা তম্ময়, আর.বি প্রীতম ও অনেকে। নাটকটি প্রযোজনা করেছে টম ক্রিয়েশন্স।
ঈদের ধারাবাহিক ফান্দে পড়িয়া বগা কান্দে
নাটকটি সম্পর্কে নির্মাতা আর বি প্রিতম জানান, নাটকটিতে মূল চরিত্রগুলো কিভাবে তাদের জীবনকে বদলে ফেলে সেই বিষয়টিই তুলে ধরা হয়। নতুন  পরিবেশ, নানা ঘটনা আর উপলদ্ধি মানুষের জীবনকে বদলে দেয়। নেপাল অনেক সুন্দর আর গল্পে কারণেহ নেপালে শুটিং করতে আসা। নাটকে অভিনেতা অভিনেত্রীরা সবাই অনেক ভালো অভিনয় শিল্পী এবং খুবই কোয়াপারেটিভ ।
ইরেশ যাকের বলেন, এটা আমার দেশের বাইরে অভিনয় করার প্রথম অভিজ্ঞতা। চরিত্রের কথা বলতে গেলে চরিত্র সবসময় নিজের জায়গা থেকে চ্যালেজিং। এখানে একধরনের নেগেটিভ চরিত্র তৈরি করতে হয়েছে, কারণটা অবশ্য পরে  বুঝা যাবে। বিয়টা ইন্টারেস্টিং ছিল। গল্পের জায়গা থেকে সাবাই মিলে চেষ্টা করেছি একটা ভালো নাটক করার জন্য। আশা করি দর্শকদের ভালো লাগবে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
বিনোদন পাতার আরো খবর

Developed by orangebd