ঢাকা : মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • সরকার নদীখননের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে : নৌ-পরিবহনমন্ত্রী          দক্ষতা-জ্ঞান-প্রযুক্তির মাধ্যমেই সক্ষমতা অর্জন সম্ভব : পররাষ্ট্রমন্ত্রী           বাংলাদেশে এ বছর রেকর্ড পরিমাণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে          জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত হয়নি : সিইসি          আ.লীগ সরকার ছাড়া কোনো দলই এত পুরস্কার পায়নি : প্রধানমন্ত্রী          মোবাইল ব্যাংকিং সেবার চার্জ কমে আসবে : অর্থমন্ত্রী          রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সু চিকে জাতিসংঘের অনুরোধ
printer
প্রকাশ : ২৮ আগস্ট, ২০১৭ ১৪:৫৩:১৮
স্থলবন্দরে চাউল আমদানি বাড়ায় স্থানীয় বাজারে দাম কমেছে
এম এ রহিম, বেনাপোল


 


সরকার চাউলের উপর শুল্ক ১০% থেকে কমিয়ে ২% করায় দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে প্রতিদিন বিপুল পরিমান চাউল আমদানি শুরু হয়েছে। জোরে সোরে খালাস হচ্ছে আটকে থাকা চাউলের চালান। স্থানীয় খোলা বাজারে তার প্রভাবও পড়তে শুরু করেছে। প্রতি কেজি চাউলের দাম কমেছে ৫থেকে ৭টাকা। গত পাঁচ দিনে ৯হাজার ৬১৫ মেট্রিকটন চাউল বন্দর ছেড়েছে। এই সময় ভারত থেকে বেনাপোল বন্দরে ঢুকেছে ৭হাজার ৫৬৪ মেট্রিক টন চাউল। রবিবার পর্যন্ত এসেছে প্রায় ১৬হাজার মে:টন চাউল। ফলে খুশি ক্রেতা ও বিক্রেতারা। আমদানি কারক প্রতিষ্টান হচ্চেন লাভবান। বন্দরে গতি ফিরতে শুরু করেছে।
চাউল ক্রেতা আমেনা খাতুন ও ফরিদ উদ্দিন বলেন, চিকন চাউল এক সপ্তাহ আগে কিনেছি ৫২টাকা মোটা কিনেছি ৪৫টাকা। ভারত থেকে চাউল আসায় এখন বাজারে চিকন চাউল ৪৬টাকা ও মোটা ৩৯টাকায় কিনতে পারছেন এতেই অনেক খুশি তারা।  
শুল্ক প্রত্যাহারের আশায় চাউল আমদানি ও খালাস বন্ধের ফলে বেড়ে যায় দাম। চাউল আমদানি পুরোপুরি শুরু হওয়ায় বেনাপোল,নাভারণ.বাগআচড়া ও শার্শার হাটবাজারে দাম কমতে শৃুরু করেছে। মোটা চাউল ৪৫/৪৬টাকা থেকে কমে ৩৮/৩৯টাকা। চিকন চাউল ৫২টাকা থেকে কমে প্রাইকারী ৪৫টাকায় কেনাবেচা চলছে। ৫দিনের ব্যবধানে প্রতি কেজিতে চাউলের দাম কমেছে ৪/৭টাকা।
 
ব্যবসায়িরা বলেন যখন যেমন দামে কেনেন ২ এক টাকা লাভে বাজারে চাউল বিক্রি করেন তারা। তবে দাম আরো কমবে বলে আশা করেন ব্যাবসায়িরা।  
 বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন ও বন্দর ব্যবহারকারিরা বলছেন,চাউল খাল্সা প্রক্রিয়া চলছে দ্রুত। সরকার শুল্কহার ২%থেকে কমিয়ে শুন্য শুল্কহার করলে চাউলের বাজার দ্রুত সরকারের নিয়ন্ত্রনে চলে আসবে। আমদানি বাড়ানোর সাথেই ধান চাউল উৎপাদন বাড়ানোর উপর গুরুত্ব দেন তারা।
বেনাপোল কাষ্টম হাউজ কমিশনার শওকাত হোসেন,এন্টেগ্রেট চেকপোষ্ট খুলে দেওয়ায় সব সময় আসছে চাউল। গত ৫দিনে এসেছে সাড়ে ৭ হাজার মেটিক টন চাউল। এসময়ে খালাস হয়েছে সাড়ে ৯হাজার মেট্রিকটন চাউল। কাষ্টম কর্তৃপক্ষ চাউল খালাস প্রক্রিয়া দ্রুত করতে রাত দিন কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান তিনি।
 
চাউল আমদানিতে শুল্কহার শুন্য% হোক। ফলে বাজারে কমবে দাম এমটাই আশা ব্যাবসায়ি ও বন্দর ব্যবহারকরীদের।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ-বাণিজ্য পাতার আরো খবর

Developed by orangebd