ঢাকা : বুধবার, ২০ মার্চ ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে          বাংলাদেশ ব্যাংকের বিরুদ্ধে ফিলিপাইনের আরসিবিসির মামলা          দুর্নীতি করলেই যথাযথ ব্যবস্থা : প্রধানমন্ত্রী          মিয়ানমার সংকট : শান্তিপূর্ণ সমাধান চায় জাতিসংঘ
printer
প্রকাশ : ০৫ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:২২:২৭
কোকা-কোলা জিরো আনছে ফুডিজ রেস্টুরেন্ট উইক


 


কোকা-কোলা জিরো এর সহযোগিতায় ৫ অক্টোবর থেকে ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত ‘ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক- ২০১৭’ উৎসবের আয়োজন করেছে। ঢাকার ৩০টি জনপ্রিয় ও বিখ্যাত রেস্তোরাঁ নিয়ে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। ৩ অক্টোবর, মঙ্গলবার রাজধানীর গোল্ডেন টিউলিপÑ দ্য গ্র্যান্ডমার্ক ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে এই উৎসব আয়োজনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কোকা-কোলা বাংলাদেশ লিমিটেডের কান্ট্রি মার্কেটিং ম্যানেজার মোয়াস্সের আহমেদ এবং আয়োজক প্রতিষ্ঠান ফুডিজের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।
কোকা-কোলা বাংলাদেশ তাদের নতুন ব্র্যান্ড কোকা-কোলা জিরো নিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো ‘ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক- ২০১৭’ আয়োজন করছে। আগের তিনটি রেস্টুরেন্ট উইক ব্যাপক সাফল্য ও খ্যাতি অর্জনের ধারাবাহকিতায় এবং ভোজনরসিকদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় কোকা-কোলা বাংলাদেশ এই রেস্টুরেন্ট উইক আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে।
কোকা-কোলা বাংলাদেশ সম্প্রতি দেশের বাজারে বহুল প্রত্যাশিত ‘কোক জিরো’ এবং ‘স্প্রাইট জিরো’ নামের দুটি চিনিমুক্ত কোমলপানীয় বাজারজাত করতে শুরু করেছে। কোকা-কোলা লাইফস্টাইল অ্যাপ ওয়াওবক্সের মাধ্যমে এই দুটি পণ্যের উদ্বোধন করায় তা ভোক্তাদের মাঝে ব্যাপক আগ্রহ তৈরি করে। লাইফস্টাইল অ্যাপ ওয়াও বক্সের মাধ্যমে বাংলাদেশে কোকা-কোলার কোনো পণ্য বিপণনের প্রথম ঘটনা এটি। প্রাথমিক প্রমোশনের পর ৩ অক্টোবর থেকে সারা দেশে কোক-জিরো ও স্প্রাইট জিরো পাওয়া যাচ্ছে।
‘ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক- ২০১৭’ চলাকালে ভোজনরসিকরা ঢাকা শহরের নির্বাচিত ৩০টি রেস্টুরেন্টে নতুন দুটি কোমলপানীয় কোকা-কোলা জিরো ও স্প্রাইট জিরোর দুর্দান্ত স্বাদ উপভোগ করতে পারবেন।
নতুন কোকা-কোলা জিরো ব্র্যান্ডটি নিয়ে আসছে ’ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক ২০১৭’ রেস্টুরেন্ট উইক । সারা দুনিয়াতেই এ ধরনের আয়োজন হয়ে থাকে, যা থেকে ভোক্তারা খাবার-দাবারের দুর্দান্ত সুযোগ গ্রহণ করে থাকেন। একইভাবে ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক চলাকালে ভোজনবিলাসীরা শীর্ষস্থানীয় নতুন রেস্টুরেন্ট পরিদর্শন এবং ডিসকাউন্টেড সেট মেন্যু প্রাইস এবং এসব প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ব্র্যান্ডের জনপ্রিয় ও বিখ্যাত খাবারগুলো গ্রহণের সুযোগ পাবেন। একই ধরনের পুরোনো রেস্টুরেন্টে গতানুগতিক খাবার গ্রহণের চেয়ে নি:সন্দেহে ৩০টি নতুন ও বিখ্যাত রেস্টুরেন্টে একযোগে চলা ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক এর মতো গিয়ে খাওয়া-দাওয়া করাটা অনেক বেশি আনন্দ দেবে ভোজনবিলাসীদের।
যেসব রেস্টুরেন্ট একযোগে দারুণ এই রেস্টুরেন্ট উইক চলবে সেগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ দি ফউিমজি; হাক্কা ঢাকা; আলফ্রেসকো; ডব্লিউ ফাইন ডাইন; ক্যাফে অ্যাপেলিয়ানো; ট্র্যাডিশান বিডি; টেস্ট অব লঙ্কা; থার্টি থ্রি; ওয়াটারক্রেস; তারকা; শাকিবস ৭৫; পাপরিকা; চিলান্ত্রো; কারিকর চাইনোসিউর; রাইস অ্যান্ড নুডলস; টেস্ট বাড; ক্লাউড বিস্ত্রো; পাতুরি; লাক্ষেèৗ; খাজানা, লোটাস ই’ট্যাং; কোল্ড স্টোন ক্রিমেরি। সানায়া’স কিচেন। থাই সিগনেচার, দি প্রান্ডিয়াম, ওয়েস্টিন; গোল্ডেন টিউলিপ; লং বীচ, দি অলিভস।  
ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক উৎসবে ভোজনরসিকদের আগে থেকে কোনো রকম টিকিট বা বিশেষ পাস সংগ্রহ করতে হবে না। তবে তাঁদেরকে রিজার্ভেশন অর্থাৎ যে রেস্টুরেন্টে পছন্দের খাবার খেতে চান সেটিতে আগেভাগেই অর্ডার দিয়ে রাখার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এই ওয়েবসাইট www.foodiez.com.bd থেকে এসব রেস্টুরেন্টের সাথে যোগাযোগ-সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য জানা যাবে। নির্বাচিত ৩০টি রেস্টুরেন্টে কোক জিরো বা স্প্রাইট জিরোসহ সেট মেন্যু দাম পড়বে যথাক্রমে ৪৯৯ টাকা, ৯৯৯ টাকা, ১,৪৯৯ টাকা ও ২,৪৯৯ টাকা এবং ভ্যাট ও র্সাভসি র্চাজ এর মধ্যে অর্ন্তভুক্ত থাকব।
কোকা-কোলা বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) শাদাব খান এ প্রসঙ্গে বলেন, খাবার  ও কোকের মধ্যে আগেও যেমন পারফেক্ট ম্যাচ বা দারুণ এক যুগলবন্দী ছিল, তেমনি ভবিষ্যতেও সব সময় তা অব্যাহত থাকবে। এই সম্পর্কটিকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে আমরা ফুডিজের সহযোগিতায় রেস্টুরেন্ট উইক আয়োজন অব্যাহত রেখেছি; যাতে মানুষ তাদের জীবনের একঘেয়েমি থেকে বেরিয়ে বন্ধু-বান্ধব ও পরিবার-পরিজনের সাথে স্বস্তিতে নতুন খাবার-দাবার গ্রহণের চমৎকার সুযোগ পায়। সুতরাং কোকা-কোলা জিরো নিবেদিত ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক চলাকালে রাজধানীতে যেকোনো ভোক্তা তার প্রিয় ও সবচেয়ে কাছাকাছি অবস্থানের রেস্তোরাঁয় গিয়ে পছন্দের খাবার খেয়ে এই খাদ্য উৎসবের গর্বিত অংশীদার হতে পারেন!
ফুডিজের প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ আশিকুর রহমান বলেন, কোকা-কোলা আগে থেকেই আমাদের একটি পার্টনার বা অংশীদার। তাদের সাথে মিলে আমরা ২০১৩ সাল থেকে এ ধরনের রেস্টুরেন্ট উইক আয়োজন করে আসছি। বলার অপেক্ষা রাখে না যে ঢাকার জনগণের কাছে একটি প্রাথমিক বিনোদন হচ্ছে খাদ্য। আমরা নিজস্ব খাবার খেতে যেমন পছন্দ করি, তেমনি নতুন ধরনের খাবার খাওয়াটাও আমাদের অনেক পছন্দ। কোকা-কোলা জিরো নিবেদিত ফুডিজ ঢাকা রেস্টুরেন্ট উইক  চলাকালে ভোক্তারা ঢাকায় একই সেট প্রাইস (একই ধরনের দামে) এ ৩০টি রেস্টুরেন্টের পরিবেশিত আলাদা বৈশিষ্ট্যের খাবারগুলো খাওয়ার সুযোগ পাবেন। বিজ্ঞপ্তি

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সারা দেশ পাতার আরো খবর

Developed by orangebd