ঢাকা : মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম :

  • সরকার নদীখননের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে : নৌ-পরিবহনমন্ত্রী          দক্ষতা-জ্ঞান-প্রযুক্তির মাধ্যমেই সক্ষমতা অর্জন সম্ভব : পররাষ্ট্রমন্ত্রী           বাংলাদেশে এ বছর রেকর্ড পরিমাণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে          জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত হয়নি : সিইসি          আ.লীগ সরকার ছাড়া কোনো দলই এত পুরস্কার পায়নি : প্রধানমন্ত্রী          মোবাইল ব্যাংকিং সেবার চার্জ কমে আসবে : অর্থমন্ত্রী          রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে সু চিকে জাতিসংঘের অনুরোধ
printer
প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৫৪:৩৪আপডেট : ০৫ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৫৬:১৬
বেনাপোলে আলুর বাজারে ধ্বস
এম এ রহিম, বেনাপোল

 

বেনাপোল সহ শার্শা উপজেলার স্থানীয় সবজির বাজারে গত ৫ দিনের ব্যাবধানে গোল-আলুর দাম কমে গেছে ৩থেকে ৫টাকা। লোকসানের মুখে পড়েছেন চাষী ও ব্যবসায়িরা ফলে ক্ষতির আশংকায় হিমাগার থেকে আলু তুলছেন না তারা। দাম কমায় খুশি ক্রেতারা- অলস সময় কাটাচ্ছে হিমাগারের শ্রমিকরা।  
 
স্থানীয়  আলু ক্রেতা সারমিন আক্তার ও আতিয়ার রহমান বলেন, সব ধরনের সবজির দাম ক্রেতাদের নাগারেল বাহিরে থাকলেও  আলুর দাম রয়েছে ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে খুশি তারা।  
হিমাগার শ্রমিক রাবেয়া খাতুন আব্দুস সামাদ ও নজরুল ইসলাম বলেন,আলুর দাম কমে যাওয়ায় অনেকে হিমাগার থেকে তুলছেন না আলু ফলে কাজ নেই তাদের। খেয়ে না খেয়ে চলছে দিন।
 
প্রতি বছর দেশে বাড়ছে আলুর উৎপাদন। গত ৫ বছর আগে ২০১২-২০১৩ অর্থবছরে দেশে আলুর উৎপাদন হয় ৮৬লাখ মে: টন। প্রতিবছর আলুর উৎপাদন বাড়ছে ৩লাখ মে:টন। পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য মতে ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে আলুর উৎপাদনের লক্ষমাত্রা ধরা হয়১কোটি টন। যা বিগত বছরে উৎপাদন হয় ৯৪লাখ৭৪ হাজার টন। ডিসেম্বর থেকে বাজারে নতুন মৌসুমের আলু আসা শুরু কর্ েমার্চ নাগাদ হিমাগারে আলু সংরক্ষন করেন ব্যাবসায়ি ও চাষীরা। নতুন আলু বিক্রি হয়১৪থেকে ২০টাকা।আর হিমাগারের আলু বিক্রি হয় ২৫ থেকে ৩০টাকায়। এবার নতুন আলু উঠার আগেই গত ৫দিনের ব্যাবধানে আলুর দাম কেজিতে ৩থেকে ৫টাকা কমায় চাষী ব্যাবসায়ি ও হিমাগার মালিকরা পড়েছেন বিপাকে।
স্থানীয় আলু চাষী রিপন হোসেন, আব্দুর রহমান জানান, ৫ বিঘা জমিতে ৩০ হাজার টাকা খরচ করে আলু করেছেন তারা। ফলন হয়েছে ভাল। বেশী দাম পাওয়ায় আশার হিমাগারে আলু রেখেছেন তারা। এখন বাজারে আলুর দাম কমে যাওয়ায় লোকসানের মুখে পড়েছেন আলু চাষীরা। হিমাগার খরচ সহ পরিবহন খরচ ও ব্যাংক থেকে ঋন নিয়ে আলু চাষে চরম ভাকে লোকসানের মুখে পড়েছেন।  
স্থানীয় আলু ব্যবসায়িরা ইসমাইল হোসেন বলেন, ১৭০ ট্রাক আলু রেখেছেন কোল্ডষ্টোরে। ১০গাড়ী আলু বিক্রি হলেও দাম কমে যাওয়ায় চরমভাবে লোকসানের মুখে তিনি। হতাশা ও উৎকন্ঠায় রয়েছেন ব্যবসায়িরা।বেনাপোলে আলুর বাজারে ধ্বস
 
বর্তমানে স্থানীয় আলুর বাজারে বুধবার প্রতিকেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ১২থেকে ১৩টাকায়। যা ৫দিন আগে প্রতি কেজি বিক্রি হয়েছে ১৮থেকে ২০ টাকায়-
সবজি ব্যাবসায়িরা জানান, ১৩ টাকায় আলু কিনে সাড়ে ১৪ থেকে ১৫ টাকায় বিক্রি করছেন আলু। তারা আগেই বেশীদামে আলু কিনে কম দামে বিক্রি করায় গুনছেন লোকসান।  
শার্শা উলাশি সুন্দর বন হিমাগারের ম্যানেজার মারুফ হোসেন বলেন, আলুর বাজারদর কমে যাওয়ায় আলু নিচেছনা ব্যাবসায়ি ও চাষীরা। ফলে হিমাগার কর্তৃপক্ষও করছেন লোকসানের আশাংকা।
 
শার্শা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হীরক কুমার সরকার বলেন, যশোরের শার্শায় ৩৮০ হেক্টর জমিতে হয়েছে আলুর চাষ। আবহাওয়া ভাল থাকায় বাম্পার ফলন সহ কৃষকরা দাম পেযেছে ভাল। তবে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ বেশী থাকায় কৃষকরা কিছুটা দাম পাচ্ছেন কম। আগামীতে আলু চাষে তারা পুশিয়ে উঠবে এমনটাই আশা কৃষি কর্মকর্তার।
কোল্ড ষ্টোর ব্যবসায়িরা জানান, দেশে ৭০লাখ থেকে ৮০লাখ মে:টন আলু উৎপাদন হলে সরবরাহ  ও চাহিদা থাকবে ভাল। উপকৃত হবে চাষী ও ব্যাবসায়ি সহ ক্রেতা সাধারন।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ-বাণিজ্য পাতার আরো খবর

Developed by orangebd