ঢাকা : রোববার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম :

  • মেক্সিকোতে শক্তিশালী ভূমিকম্প          এইচএসসি পরীক্ষা শুরু ২ এপ্রিল          শিক্ষকদের হাতেই রয়েছে জাতির ভবিষ্যত : প্রধানমন্ত্রী          তিন হাজার বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা হবে          পাবলিক পরীক্ষায় অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী           সালেই বাংলাদেশ বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হবে : মেনন
printer
প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৭:২৮:২৫
রাউজানে অটোরিকশা ড্রাইভার সহ ৫ জন আহত
এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান (চট্টগ্রাম)


 


রাউজানের আমিরহাট বাজারে চাঁদের গাড়ি (জীপ) ঢুকে পড়ল দোকানে!। আর সে জীপের ধাক্কায় সিএনজি অটো রিকশার ড্রাইভার সহ ৪ জন আহত হয়েছে। এরমধ্যে একজনের অবস্থা গুরতর। বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে নম্বর বিহীন বালু পরিবহনের জন্য যাওয়ার পথে দোস্ত মুহাম্মদ সড়কের আমিরহাট বাজারের ইলিয়াছ সওদাগরের দোকানের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী সিএনজি ড্রাইভার বাসুদেব বড়–য়া ও লাইনম্যান সরোয়ার সহ অনেকেই জানান,গতকাল সকালে জীপের ড্রাইভার পূর্ব বড়–য়া পাড়ার সাইক্ষা ডাক্তারের মধ্যপ পুত্র কালামনি বড়–য়া নিজে ড্রাইভিং না করে তার সহকারী হলদিয়া আমতলী ঠিলার আবদুন নবীর পুত্র রফিককে দিয়ে গাড়ী স্ট্রাট দিতে বলে। সে সময় গাড়ী গিয়ারে থাকায় গাড়ী দ্রুত বেগে রাস্তা থেকে বজল সওদাগরের বন্ধ ক্রোকারিজের দোকানের সাটারে গিয়ে সজোরে আঘাত করে। এতে দোকানের সাটার ও আয়নার শোকেচ ভেঙ্গে চুরমার হয়েযায়। সে সময় দোকানের সামনে বসে রোদের তাপ নিচ্ছিলেন স্থানীয় ৫/৬ জন ব্যক্তি। গাড়ীর বেগতিগ অবস্থা দেখে শীতের জন্য রোদের তাপ নেওয়া সকলে কাদচিৎ হয়ে পালাতে পারলেও স্থানীয় সিএনজি অটো রিকশা চালক হলদিয়া ইউনিয়নের সর্তারকুল চান্দ কাজীর বাড়ী মুহাম্মদ এরশাদের পুত্র মুহাম্মদ ফরহাদ (১৭) গাড়ীর নিচে আটকা পড়ে। এতে সে গুরুতর আহত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় গাড়ীর নিচে পড়ে থাকে। তাকে দ্রুত স্থানীয়রা উদ্ধার করে চমেকে নিয়ে যায়। তার অস্থা আশংকাজনক বলে জানাগেছে। গাড়ীর ধাক্কায় আহত ডাবুয়ার বদ সওদাগরের পুত্র নেজাম (২৫),বসু দেব (৪৮),রফিক (২২),কালা মনি (২৮) তাদেরকে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।স্থানীয়রা জানান প্রতিদিন নম্বরবিহীন জীপগুলো বেপরোয়া গতিতে সড়কে চলাচল করলেও প্রসাশন এসব গাড়ীর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। প্রতিদিন স্কুল কলেজ মাদ্রাসার ছাত্রছাত্রীরা হলদিয়া ভিলেজ সড়ক,দোস্ত মোহাম্মদ সড়ক দিয়ে চলাচল করতে হয় বিধায় বেপরোয়া জীপগুলোর কারনে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা প্রতিনিয়ত উদ্বেগ উৎকন্ঠায় থাকেন।স্থানীয়রা দাবী করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে নম্বর বিহীন এসব জীপ গাড়ি রাস্তায় যাতে চলাচল করতে না পারে সে ব্যবস্থা নেওয়ার।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সারা দেশ পাতার আরো খবর

Developed by orangebd