ঢাকা : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পণ্য মজুদ আছে, রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চায় সরকার          অর্থনৈতিক উন্নয়নে সব ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী          বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ২০ এপ্রিল, ২০১৮ ২১:৩৭:১৫আপডেট : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ১৭:২১:১১
নারী স্বাধীনতা
সালমা আফরোজ


 


স্বাধীনতা অর্জনের প্রায় অর্ধশতক পরেও
নারী স্বাধীনতা ভূলুন্ঠিত হচ্ছে বাংলার
মাটিতে; নারীকে যে দেশে তুলনা করা হয়
ফলের সাথে, যে দেশে নারীর পোশাক
নিয়ে আঙুল তোলা হয় নির্লজ্জভাবে
তাদের কাছে ছোট্ট একটি প্রশ্ন রাখি-
দয়া করে উত্তর দেবেন কি? পাশবিক
নির্যাতনের শিকার হচ্ছে যে শিশুরা
তারা কোন বাসে-ট্রামে যাতায়াত করেছিল
উগ্রভাবে? কিংবা কোন পর্দা-প্রথার
সীমা লংঘন করেছিল? তারা কেন
নির্যাতিত হয় নিজ গৃহে? দাদা-নানা কিংবা
অন্য পুরুষের কাছে? পৃথিবী সভ্যতার
এতবছর পরেও নারীর স্বাধীনতা
হয়ে আছে প্রশ্নবিদ্ধ; প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে ছোট্ট
শিশুটির সামান্য একটু নিরাপত্তা; তবে
এটা কেমন স্বাধীনতা? আজো বাংলায়
চলছে আদিম বর্বরতা? এই স্বাধীনতার
জন্যই কি ৩০ লাখ মুক্তিসেনা জীবন দিয়েছে?
নর-নারীর মাঝে বৈষম্য তৈরি কি স্বাধীনতা?
প্রতিদিন নারী ও কন্যা শিশু নির্যাতনের
শিকার হচ্ছে এরই নাম কি স্বাধীনতা?
কে রুখবে এদের গতি?
কে নেবে এদের পাপের দায়ভার?
কেন বাংলার মাটিতে ফিরে আসে
বার বার পাক হানাদার?
তবে কি পুরুষের জন্য সেই
মধ্যযুগের দাস প্রথাই ছিল উত্তম?
কে করল তাদের শৃঙ্খলমুক্ত?
আবার পরিয়ে দাও তাদের হাতে
পায়ে বেড়ি; লোহার শিকলে কর বন্দি;
এটাই হবে তাদের উপযুক্ত শাস্তি।
পৃথিবী যখন এগিয়ে যাচ্ছে
আমরা বীভৎস আদিম ক্ষুধার
রিপু নিয়ে মহাব্যস্ত; সেদিন
কবে আসবে, যেদিন নারী ফিরে পাবে
তার পূর্ণ স্বাধীনতা? থাকবে না বৈষম্যের বেড়া;
আর কোনো পত্রিকার হেড লাইন হবে না-
কোনো শিশুর শ্লীলতাহানির কথা
কিংবা টিভির কোনো চ্যানেলে ব্রেকিং
নিউজ হবে না কোনো ধর্ষিত শিশু?
থাকবে না কোনো নারীর মনে
সম্ভ্রম হারাবার ব্যথা; কন্যা শিশুটিকে
নিয়ে কোনো মায়ের কপালে পড়বে না আর
দুশ্চিন্তার রেখা?

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd