ঢাকা : বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • ডেঙ্গু এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে : কাদের          ঈদে হাসপাতালের হেল্প ডেস্ক খোলা রাখার নির্দেশ          নবম ওয়েজ বোর্ডের ওপর হাইকোর্টের স্থিতাবস্থা           বন্দরসমূহের জন্য ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৮ ১৯:২৩:১৯
বজলুর রায়হান-এর ছিন্নভিন্ন পঙ্ক্তিমালা


 

এক.
আকাশ জেনেছে বাতাস জেনেছে 
               জেনেছে নদীর ঢেউ,
জনম জনম তুমি যে আমার 
             আমিও তোমার কেউ।
 
দুই.
ভুল কোনো নামে সখি
কাউকে ডেকো না 
ভুল করে ফুলমালা 
গেঁথো না গেঁথো না 
 
তিন.
বালিকা বলিয়াছিল- ভালোবাসি, 
চুপিসারে অভিসারে 
দয়িতের বাহুডোরে
প্রেম নয়, ছিলো জ্বালা 
ছিলো প্রবঞ্চনার মালা 
বালিকার ভালোবাসা ভুল ছিল!
 
চার.
মাঝে মাঝে মনে হয় 
ওই আকাশে উড়ে বেড়ানো 
মেঘরাজ্যে হারিয়ে যাই 
মাঝে মাঝে মনে হয় 
জনারণ্য থেকে দূরে কোথাও 
আন্ধারে পালাই...
 
পাঁচ.
দহনে দগ্ধ হয় শীতল শরীর 
পোড়ে মনের ভিতর-বাহির
অনাচার অযাচারে ছুটে আসে রাহু 
পোড়া জমিনে ফোটে না কোনো 
                        আনন্দ-প্রসূন 
এমন দিন যদি আসে 
                   শক্ত করো দু’বাহু 
তেজোদীপ্ত হও, প্রতিবাদী হও 
       জ্বালাও মনে দ্রোহের আগুন! 
 
ছয়.
ফুল ভালোবাসি তাই
কাঁটার আঘাত স’য়ে স’য়ে
দুঃখ-দহন বুকে ব’য়ে
ফুলের কাছেই যাই...
 
সাত.
মানিকে মানিক চিনে
রতনে রতন-
তুমি চিনো টাকা-কড়ি
বোঝোনিতো মন।
 
আট.
ও কুসুম, ও আমার জান 
        তোমার কী ধারণা- 
বুকের গহিনে দিনে দিনে 
জমে থাকা নীরব প্রেম 
           সরব হবে না?

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd