ঢাকা : শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম :

  • জাতীয় নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর          নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনো সুযোগ নেই : সিইসি          আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার বুধবার থেকে নেবেন প্রধানমন্ত্রী          দুই দেশের সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাক : মমতা          জীবনমান উন্নয়নের শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছতে পারবে না : জয়
printer
প্রকাশ : ২৪ জুন, ২০১৮ ১৭:২৭:৪৩আপডেট : ২৫ জুন, ২০১৮ ০৯:৪০:৪৬
বাজেটে ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি কম্পিউটার পণ্যে
ফেরদৌস হোসেন বাবু


 


২০১৮-১৯ সালের প্রস্তাবিত বাজেট পাস হলে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের মূল্য প্রায় ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে বলে আশঙ্কা করেছে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির নেতারা।  তারা বলছেন, কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের দাম বৃদ্ধি পেলে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশের অগ্রগতি অনেকাংশে থমকে যাবে। এ জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে কম্পিউটারের উৎপাদন, আমদানি ও বিপণন পর্যায়ে অ্যাডভান্স ট্রেড ভ্যাট (এটিভি) প্রত্যাহার জানানো হয়।
২৪ জুন রোববার দুপুরে রাজধানীর বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়।
সুব্রত সরকার বলেন, ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের জাতীয় সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি যথাযথ গুরুত্ব ও আগ্রহের সঙ্গে পর্যালোচনা করেছে। এতে কিছু সংশোধনী আনার জন্য অর্থমন্ত্রী, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট সব মহলের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
তিনি বলেন, বিসিএস-এর  সংশোধনী প্রস্তাবগুলো হলো-ব্যবসায়ী পর্যায়ে কম্পিউটার ও এর যন্ত্রাংশের মূসক অব্যহতি বহাল রাখা। নতুন করে আরোপিত কম্পিউটার পণ্যের উপর এটিভি প্রত্যাহার করা এবং তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর সেবার এর সংজ্ঞায় হার্ডওয়্যারকেও অন্তর্ভুক্তিতকরণ।
বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর সেবার সংজ্ঞায় সফ্টওয়্যার অ্যান্ড তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর কিছু সেবা অন্তর্ভুক্ত আছে. হার্ডওয়্যার অন্তর্ভুক্ত নেই। হার্ডওয়্যার ছাড়া তথ্যপ্রযুক্তির কোন কার্যক্রম ও প্রবাহ কোনভাবেই সম্ভব নয়।
এজন্য বিসিএস-এর পক্ষ থেকে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর সেবার এর সংজ্ঞায় সফ্টওয়্যার এবং অন্যান্য তথ্য প্রযুক্তি সেবার পাশাপাশি হার্ডওয়্যার অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য আইসিটি প্রতিষ্ঠানগুলোর বাড়িভাড়ার ওপর ১৫ শতাংশ মূসক মওকুফ করা হোক।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিসিএসের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম, মহাসচিব মোশারফ হোসেন সুমন, কোষাধ্যক্ষ মো. জাবেদুর রহমান শাহীন, পরিচালক মো. আছাব উল্লাহ খান জুয়েল।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
তথ্য-প্রযুক্তি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd