ঢাকা : বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পণ্য মজুদ আছে, রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চায় সরকার          অর্থনৈতিক উন্নয়নে সব ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী          বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫১:০১
দেশে মোটরসাইকেল তৈরির নীতিমালা মন্ত্রীসভায় অনুমোদন
টাইমওয়াচ রিপোর্ট


 


দেশীয় মোটরসাইকেল উৎপাদনে প্রসার ঘটানো ও মোটরসাইকেল খাতে ব্যাপক কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ উপলক্ষে একটি নীতিমালা অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। দেশীয় প্রযুক্তিতে দেশেই তৈরি হবে বিশ্বমানের মোটরসাইকেল।
১০ সেপ্টেম্বর সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, আমাদের দেশে দেশজ ইন্ডাষ্ট্রির মাধ্যমে দেশে নতুন মোটরসাইকেল নির্মাণের জন্য এ নীতিমালা অনুমোদন পেল। নীতিমালায় মোটরসাইকেল উৎপাদনের জন্য একটি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে কমপক্ষে পাঁচ লাখ এবং ২০২৭ সালের মধ্যে ১০ লাখ মোটরসাইকেল উৎপাদন করা হবে। এ মোটরসাইকেল উৎপাদন করা হবে দেশীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও বলেন, প্রতিযোগিতামূলক আন্তর্জাতিক বাজারে মানসম্মত মোটরসাইকেল সরবরাহ করা হচ্ছে এ নীতিমালার মূল উদ্দেশ্য। মোটরসাইকেল শিল্প থেকে জিডিপির বর্তমান অবদান ০.৫ শতাংশ রয়েছে। এটা উন্নীত করে ২০২৫ সালের মধ্যে ২.৫ শতাংশ করার টার্গেট গ্রহণ করা হয়েছে।’
মোটরসাইকেল খাতে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে বর্তমানে কর্মসংস্থানের সংখ্যা পাঁচ লাখ থেকে বাড়িয়ে ২০২৭ সালের মধ্যে ১৫ লাখ মানুষের কর্মসংস্থানের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান শফিউল আলম।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এ নীতিমালার মাধ্যমে বাংলাদেশে বিদ্যমান মোটরসাইকেল যন্ত্রাংশ এনে মোটরসাইকেল তৈরির পরিবর্তে বিশ্বমানের কারখানা সৃষ্টির জন্য সংশ্লিষ্টদের উৎসাহিত করা হবে। বৈদেশিক মুদ্রার সাশ্রয় ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণ কর্মসংস্থানের সৃষ্টির করা পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ-বাণিজ্য পাতার আরো খবর

Developed by orangebd