ঢাকা : শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম :

  • জাতীয় নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর          নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনো সুযোগ নেই : সিইসি          আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার বুধবার থেকে নেবেন প্রধানমন্ত্রী          দুই দেশের সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাক : মমতা          জীবনমান উন্নয়নের শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছতে পারবে না : জয়
printer
প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:৪৯:১৭
বাংলাদেশ আইএসডিবির সদস্য দেশগুলোর জন্য উন্নয়ন মডেল
টাইমওয়াচ ডেস্ক


 


ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংকের (আইএসডিবি) প্রেসিডেন্ট বান্দার এম এইচ হাজ্জার বলেছেন, ধারাবাহিক উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনের পাশাপাশি আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্যের কারণে বাংলাদেশ আইএসডিবি সদস্য দেশ বিশেষ করে আফ্রিকার দেশগুলোর জন্য উন্নয়ন মডেল। একইসাথে কৌশলগত দিক দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভৌগলিক অবস্থানের কারণে আইএসডিবি ঢাকায় আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন করেছে।
৯ সেপ্টেম্বর রোববার রাজধানীর আগারগাঁও আইডিবি ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কৌশলগত দিক দিয়ে বাংলাদেশের ভৌগলিক অবস্থান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অনেক সাফল্যের গল্প আছে। ধারাবাহিকভাবে দেশটি ৭ শতাংশের মত উচ্চ হারে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করছে। এসব কারণে আইএসডিবি বাংলাদেশে আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন করেছে।
সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং আইএসডিবির প্রযুক্তি ও উদ্ভাবন বিষয়ক উপদেষ্টা হায়াত সিন্দি উপস্থিত ছিলেন।
বাংলাদেশের আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে ভারত, আফগানিস্তান, মালদ্বীপ, চীন, শ্রীলংকাসহ আরো কয়েকটি দেশের কার্যক্রম পরিচালিত হবে।
আইএসডিবির প্রেসিডেন্ট হাজ্জার বলেন, আইডিবির অর্থায়ন ও কার্যক্রম বিকেন্দ্রীকরণের যে পরিকল্পনা রয়েছে, বাংলাদেশে আঞ্চলিক কার্যালয় স্থাপন তারই অংশ।গত চার দশকে আমরা বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ২২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের উন্নয়ন সহায়তা দিয়েছি। দেশটি সফলভাবে এর ব্যবহার করতে পেরেছে। এখানকার আঞ্চলিক কার্যালয় টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) বাস্তবায়নের মাধ্যমে আথ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে স্থানীয় স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে অংশীদারিত্ব স্থাপন এবং একটি প্লাটফরম তৈরির ওপর গুরুত্ব দিবে।
তিনি আরো বলেন, আইএসডিবির ঢাকা কার্যালয় সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর বিভিন্ন উদ্ভাবনী কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহায়তা করবে।প্রযুক্তি দিনদিন এগুচ্ছে। প্রযুক্তির উন্নয়নে যেসব ধারণা আসবে, সেগুলো বাস্তবায়নে আর্থিক সহায়তা দেয়া হবে।
হাজ্জার জানান, অবকাঠামো খাতে উন্নয়নের জন্য ইসলামী উন্নয়ন ব্যাংকের (আইডিবি) সদস্যভুক্ত দেশগুলোর জন্য আগামীতে এক হাজার বিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রয়োজন হবে। কিন্তু এডিবিসহ অন্যান্য দাতাসংস্থাগুলোর মোট তহবিলের পরিমাণ ১৪৬ বিলিয়ন ডলার। তাই বেসরকারি খাতকে অবকাঠামো খাতে বিনিয়োগের বিষয়ে আইএসডিবি উৎসাহিত করছে।
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক বিশেষ করে অবকাঠামোখাতে উন্নয়নের জন্য আগামীতে আইএসডিবির উন্নয়ন সহায়তা বাড়ানোর আহবান জানান।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
অর্থ-বাণিজ্য পাতার আরো খবর

Developed by orangebd