ঢাকা : শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম :

  • সততার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে : সিইসি          নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনো সুযোগ নেই : সিইসি          দুই দেশের সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাক : মমতা          জীবনমান উন্নয়নের শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছতে পারবে না : জয়
printer
প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১১:৫০:২২আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৪:৪৬:৩৬
যা আজও বুঝতে পারিনি অহংবোধে
নজরুল মৃধা


 


সেই কবেকার কথা
মনে নেই কিছুই
তবু অবলীলায় ভোগ করছি
তাদের শেখানো
অ, আ, ক, খ, ঙ, চ ইত্যাদি।
এসব দিয়ে সেই যে চলা শুরু করলো ভাষা
আজও চলছে তো চলছেই
বিরামহীন ট্রেনের মতো।
নতুন কোনো অক্ষর, যতি, কমা ইত্যাদি
দেখছি না কিংবা দেখার চেষ্টাও করছি না।
তাহলে কি জ্ঞানের দরজা
ওই পর্যন্ত গিয়ে বন্ধ হয়েছে।
নতুন তো দূরের কথা
পুরনোর চর্চায় কুঠারাঘাতে
জানার পথ রুদ্ধ করে
স্থির দাঁড়িয়ে সেখানেই
যেখানে এসব শুরু করেছিল পূর্বপুরুষ
নামের ধ্যানী তাপসরা।
তাদের শেখানো বুলি আউড়িয়ে
শূন্যভা-ার পূর্ণ করছি মিথ্যে দম্ভে।
শূন্য থেকে নয়
এক থেকে আট
অথবা
ওয়ান থেকে জিরো
এসবও পূর্ব-পুরুষের কাছে ধার নেয়া
তাদের দেখানো পথেই চলছি।
নতুন সংখ্যা খোঁজার নামে
পথে না নেমে
পথে পথে হোঁচট খাচ্ছি
আর বড়াই করছি
সংখ্যাতত্ত্বগুলো নিজের বলে।
শুক্র থেকে বৃহস্পতি
কিংবা সানডে-মানডে
এসবও চলছে
অতীতের দেখানো নিয়মে
এখানেও আমার কৃতিত্ব কিছুই নেই
তার পরেও আমিত্ব বৃক্ষের
মগডালে আমার বাস।
পূর্ব-পশ্চিম কিংবা উত্তর-দক্ষিণ
কোনো কিছুই আমার আবিষ্কার নয়
আমি স্বার্থপরের মতো উত্তরসূরি হিসেবে
শুধু ভোগ করছি পূর্বপুরুষের ওইসব অর্জনকে।
অমাবস্যা কিংবা পূর্ণিমা
একাদশী অথবা প্রথমা তিথি
কিছুই জানতাম না আমি কিংবা আমরা।
সবকিছুই শিখেছি অতীত থেকে
এত অজ্ঞতার মাঝে মহাজ্ঞানী আমি
তাইতো জ্ঞানের দুয়ার বন্ধ হয়ে
হতাশার জানালায় কষ্ট সমিরণ
বয়ে চলছে প্রবল বেগে
যা আজও বুঝতে পারিনি অহংবোধে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd