ঢাকা : সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম :

  • জাতীয় নির্বাচন ২৩ ডিসেম্বর          নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনো সুযোগ নেই : সিইসি          আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার বুধবার থেকে নেবেন প্রধানমন্ত্রী          দুই দেশের সম্পর্ক আরও এগিয়ে যাক : মমতা          জীবনমান উন্নয়নের শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর নাম কেউ মুছতে পারবে না : জয়
printer
প্রকাশ : ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:৪০:২২
দুর্নীতিবাজদের সঙ্গে ঐক্য করেছেন ড. কামাল
মাদারিপুর সংবাদদাতা


 


ড. কামাল হোসেন ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামির অধীনে ঐক্য করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে, যারা অগ্নিসন্ত্রাস করে, যারা মানিলন্ডারিং ও দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত, যারা এতিমের টাকা চুরি করে খায়, তাদের সঙ্গে ঐক্য করেছেন ড. কামাল হোসেন গং। সঙ্গে জুটেছে কিছু খুচরা আধুলিও। গতকাল রোববার বিকালে মাদারীপুরের শিবচর এলাকায় পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে তিনি পদ্মা সেতুর মুন্সীগঞ্জের মাওয়া ও শরীয়তপুরের জাজিরা অংশ পরিদর্শন করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি কামাল হোসেন সাহেবকে বাহবা জানাই। তবে তিনি কার সঙ্গে ঐক্য করেছেন? তিনি কাকে নেতা মেনেছেন? যে পলাতক, যে বিদেশে, যে মানিলন্ডারিং কেসে সাজাপ্রাপ্ত। দশ ট্রাক অস্ত্র চোরাকারবারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত। তার অধীনেই কামাল হোসেন গংরা ঐক্য করেছেন। তারা আজ খুনিদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন। ওই খুনিদের তো মানুষ ক্ষমতায় চায় না।
ড. কামাল হোসেন নৌকা থেকে নেমে এখন ধানের শীষের হাত ধরেছেন বলে মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে ধানে শীষ নেই, চিটা ছাড়া কিছুই নেই।  ড. কামাল হোসেন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কথা বলেন, অথচ আজ যে বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে জড়িত, তিনি তাদের সঙ্গে ঐক্য গড়েছেন।
শেখ হাসিনা বলেন, বিডিআর হত্যাকা-ের সময় খালেদা জিয়া সকাল ৭টায় বাসা থেকে বের হয়ে যান। কেন বের হয়ে গেলেন? এই হত্যাকা-ে তারা যে জড়িত, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। নইলে কেন বাসা ছেড়ে চলে গেলেন? এই জবাব খালেদা জিয়াকে দিতে হবে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
রাজনীতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd