ঢাকা : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পণ্য মজুদ আছে, রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চায় সরকার          অর্থনৈতিক উন্নয়নে সব ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী          বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ২৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১৮:১৫:৩৮
সৈয়দ নজরুল ইসলাম দেখিয়ে দিয়েছেন রাজনীতিতে বড় ধরনের পদ-পদবী না থাকলেও কাজ করা সম্ভব
টাইমওয়াচ রিপোর্ট
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে সেরা বিজনেস অ্যাওয়ার্ড নিচ্ছেন সৈয়দ নজরুল ইসলাম

 

সৈয়দ নজরুল ইসলাম; চট্টগ্রাম জেলার কৃতীসন্তান ও সফল শিল্পোদ্যোক্তা। তিনি উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ শেষে তরুণ উদ্যোক্তা হিসেবে তৈরি পোশাক শিল্প খাতে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। তিনি বিজিএমইএ’র সাবেক পরিচালক। ছাত্রজীবনে বিভিন্ন সামাজিক উদ্যোগ ও সংগঠনের কার্যক্রমে সম্পৃক্ততার মধ্যে দিয়ে বিকশিত হয়ে তিনি নিজ নেতৃত্বগুণে বিজিএমইএ’র সামনে অগ্রসর হওয়ার নতুন আশার পথ দেখিয়েছেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, তিনি বিজিএমইএ’র নেতৃত্বে অনেক অবদান রেখেছেন। তিনি মনে করেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে গার্মেন্টস শিল্প খাতের ৫০ বিলিয়ন ডলারের রপ্তানি লক্ষ্য অর্জনসহ নি¤œ মধ্যম আয়ের বৃত্ত ভেঙে উচ্চ আয়ের সমৃদ্ধ দেশ ও অর্থনীতি গড়তে হলে এখন থেকেই সমুদ্র সম্পদ ও সম্ভাবনাগুলোকে কাজে লাগাতে হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ এবং চেতনায় ছাত্র ও যুব সমাজকে উদ্বুদ্ধ করার প্রত্যয় নিয়ে যারা আওয়ামী অঙ্গ সংগঠনের পদ-পদবী না পেয়ে অবহেলিত বঞ্চিত হয়েছেন, এক কথায় যারা দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতিও থেকে নিষ্ক্রিয় ছিল, তাদেরকে নিয়ে আওয়ামী পরিবারের অথবা আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন হিসেবে কাজ করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করেন বঙ্গবন্ধু ছাত্র-যুব উন্নয়ন পরিষদ। সংগঠনের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে- আওয়ামী লীগসৈয়দ নজরুল ইসলাম দেখিয়ে দিয়েছেন রাজনীতিতে বড় ধরনের পদ-পদবী না থাকলেও কাজ করা সম্ভব
সরকারের প্রচার ও প্রসার করা। সমাজের নানা রকম অবক্ষয়, অসঙ্গতি, অনিয়মের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু ছাত্র-যুব উন্নয়ন পরিষদ কাজ করে যাচ্ছে। যেমনিভাবে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জনমত গঠনসহ জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে বঙ্গবন্ধু ছাত্র-যুব উন্নয়ন পরিষদ-জনাব নজরুল ইসলাম সেইভাবে আবার সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ান। এছাড়াও বাল্য বিবাহ বন্ধ ও ইভটিজিংয়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে জনসচেতনতা সৃষ্টি করেন। নারী নির্যাতন ও যৌতুক বিরোধী আন্দোলন গড়ে তোলেন। তিনি সমাজের এতিম, অসহায় ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদেরকেও সাহায্য-সহযোগিতা করেন। তিনি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রচারের লক্ষ্যে সৃজনশীল প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘নিজে গড়ি’ নামক একটি প্রকাশনা সংস্থা গড়ে তোলেন। তার নিজের প্রকাশনা থেকে বঙ্গবন্ধুর উপর বিভিন্ন বই ইতোমধ্যে প্রকাশ করে সেই বইগুলো বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বিতরণ করেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে প্রচারপত্র হিসেবে পোস্টার, ব্যানার, লিপলেট এবং প্রজেক্টরের মাধ্যমে সমাজের আনাচে-কানাচে উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেন এবং মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নৌকা তথা আওয়ামী লীগের বিজয়ের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি চট্টগ্রামের আনাচে-কানাচে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতি ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে নীরবে নিভৃতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন। সাধারণতসৈয়দ নজরুল ইসলাম দেখিয়ে দিয়েছেন রাজনীতিতে বড় ধরনের পদ-পদবী না থাকলেও কাজ করা সম্ভব
রাজনীতিতে সবাই পদ পদবীর জন্য সময় ব্যয় করেন। অনেকে মনে করেন, পদ পদবী না থাকলে কাজ করা যায়না। কিন্তু সৈয়দ নজরুল ইসলাম তাদেরকে দেখিয়ে দিচ্ছেন যে, ‘রাজনীতিতে উল্লেখযোগ্য কোন পদ না থাকা স্বত্বেও সমাজ, দেশ তথা আওয়ামী পরিবারের জন্য নিবেদিত প্রাণ সৈয়দ নজরুল ইসলাম। পদ পদবী ছাড়াও সততা, কর্ম, তৃণমূল নেতাকর্মী নিয়ে সাংগঠনিক কর্মতৎপরতা ও সেবার মাধ্যমে সহকর্মীদের প্রিয়ভাজন হওয়া যায় পাশাপাশি সমাজে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করা সম্ভব তারই প্রকৃষ্ট প্রমাণ ‘বঙ্গবন্ধু ছাত্র যুব উন্নয়ন পরিষদ’ এর প্রতিষ্ঠাতা আজকের সৈয়দ নজরুল ইসলাম।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
বিশেষ প্রতিবেদন পাতার আরো খবর

Developed by orangebd