ঢাকা : সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পবিত্র আশুরা ১০ সেপ্টেম্বর          ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ০৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫০:১৪
সাফ ফুটবলের জয়ের নায়ক মেহেদী হাসান
এমএ রহিম, বেনাপোল


 


দরিদ্র পরিবারের মেধাবী সন্তান সাফ ফুটবলের জয়ের নায়ক মেহেদী হাসান। বেনাপোল কাগজপুকর গ্রামের মিজানুর রহমান পিন্টু ও মাতা হাসিনা খাতুনের গর্বিত পুত্র মেহেদী। তিন ভাই বোনের মধ্যে বড় সে। পিতা পরিবহন শ্রমিক। বেনাপোলের আলহাজ্ব নুর ইসলাম ফুটবল একাডেমীর সদস্য মেহেদী। যার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন। সাফঅনুর্ধ ১৫ বাছাই পর্বে ২৫০০ প্রতিযোগিতার মধ্যে ৬০ জনকে নেওয়া হয়। বেনাপোলের আলহাজ নুর ইসলাম ফুটবল একাডেমীর রবিউল, নয়নও মেহেদীর ঠায় হয়। ৬০এ। পরে জাতীয় পর্যায়ে তাদের মধ্যথেকে ৩০জনকে চূড়ান্ত তালিকাভুক্ত করা হয়। গোলপিকার মেহেদী স্থান পায় ৩০এ। পািকস্থানের কাছে বিজয় ছিনিয়ে গা গ্রামে বেড়ে ওঠা মেহেদী আজ গৌরব বয়ে আনল দেশ জাতি ও পরিবারে। তার এ জয়ে উচ্ছাসিত এলাকার মানুষ। মেহেদীর পরিবারের জন্য বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্টানে পক্ষে পাঠানো হচ্ছে মিষ্টি। আনন্দের বন্যা বইছে পরো পরিবারে। আনন্দ অশ্রতে ভাসছে প্রতিবেশীরাও।
কাগজপুকুর প্রাইমারী স্কুলে লেখাপড়া করে সে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক শাহনাজ পারভিন জানান মেহেদী লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলায় ছিল মনোযোগ বেশী। তার সাফলে গর্বিত তারা।
শিশু কাল থেকেই লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলার প্রতিছিল তার প্রবল ইচ্ছা। সাফ অনুর্ধ ১৫ বাছাই পর্বে বেনাপোলের মেহেদী জাতীয় টিমে অর্ন্তভূক্তি হয়। নেপালে অনুষ্টিত সাফ ফুটবলে পাকিস্থানকে হারিয়ে চাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ দল। গোলকিপার  মেহেদী হাসান নৈপূন্যতার সাথে ৩টি গোল ঠেকিয়ে ম্যান অবদা নির্বাচিত হয়। তার এই সাফল্যে বেনাপোল আনন্দ উৎসব ছড়িয়ে পড়ে। পরিবারে সহ সহপাঠিদের মধ্যে ২দিন ধরে চলছে মিষ্টি বিতরন। এতে খুশি পরিবার ও এলাকার মানুষ। কোচ ও টিম ম্যানেজার আশাবাদী মেহেদীর মতো আরো ফুটবলার তৈরী হবে বেনাপোলে। ক্রিকেট,ফুটবল,
 তার জয়ে খুশি পরিবারের সদস্যরা সহ স্থানীয়রা
টিম অধিনায়ক তারিক আজিজ রনি বলেন,কঠোর অনুশীলন, মনোযোগ, খেলার সুন্দর পরিবেশও কর্তৃপক্ষের সঠিক দিকনির্দেশনার কারণে আজ মেহেদীর মতো ফুটবলার তৈরী হয়েছে বেনাপোলে। যার শতভাগ কৃতিত্ব মেয়র লিটনের। অভিঙ্গ কোচারও চেষ্টা করছেন আরো মেধাবী খেলোয়ার তৈরীর। মেহেদীর সাফল্যে তারা আরো খেলায় মনোযোগি হয়েছেন। আগামীতে আরো অনেক সাফল্যের আশাবাদিও তারা।                                           
সন্তান ফুটবলে গৌরব অর্জন করায় গর্বিত পিতা মাতা। অনেক কষ্টে খেয়ে না খেয়ে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া করাচ্ছেন তারা। মেহেদীর ছিল বড় খেলোয়ার হওয়ার স্বপ্ন। তার স্বপ্ন সফলে বার বার উৎসাহ যোগিয়েছেন তারা। খেলার প্রতি মনোযোগ সব সময় বেশী থাকত তার। মেহেদীর সাফল্যে-প্রধান মন্ত্রী ও মেয়রকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান তারা। মহাখুশি ছোট বোন শারমিন আক্তার ও শামিমা আক্তার। ১৯১৬সালে প্রতিষ্টা করা হয় আলহাজ্ব নুর ইসলাম ফুটবল একাডেমী। তিন বছরের ব্যাবধানে মেহেদী যে সাফল্য বয়ে আনল সেটা বেনাপোলের বাসীর নতুন স্বপ্ন পূরন সহ আশার দ্বার উন্মোচিত করেছে। পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন আরো বলেন সৃষ্টিতে বিশ্বাসি,নতুন ও নতুন্বত্বের ফসল ফলাতে বেনাপোলকে দেশ জাতি ও বিশ্বের দরবারে পরিচয় করাতে ক্রিড়া শিক্ষা সাংস্কৃতি সহ বিভিন্ন উৎসব আনুষ্টানিকতার আয়োজন করে যাচ্ছেন তিনি। খুব শ্রিঘুই জাতীয় পর্যায়ে আরো একডজন কৃতি খেলোয়ার খেলবে বলে আশা তার।  বাংলাদেশে সরকারের ক্রিড়া ও যুব মন্ত্রী আরিফ খান জয়ের উৎসাহ সাহায্য ও সহযোগিতার কারনে  অনেক সাফল্য অর্জন সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।
আগামীতে বেনাপোলের নুরইসলাম একাডেমী ফুটবল একাডেমী থেকে অনেক ফুটবলার জাতীয় টিমে খেলবে। এমনটাই আশা সতির্থদের।
মাদক একেবারেই নয় খেলাধুলায় মিলবে জয় এই স্লোগানে মেয়র লিটনের পিতার নামে প্রতিষ্ঠা করা হয় নুর ইসলাম ফুটবল একাডেমী। আজ এ একাডেমীর সদস্য মেহেদীর গর্বে গর্বিত তারা সহ দেশবাসি। আগামীতে আরো মেহেদীর সৃষ্টি হবে বলে জানান ,সাব্বির হোসেন পলাশ;সাবেক জাতীয় ফুটবলার ও কোচার নুরইসলাম ফুটবল একাডেমী বেনাপোল।
নুর ইসলাম ফুটবল একাডেমী বেনাপোল ম্যানেজার হুমায়ন কবির জানান, প্রতিমাসে মোটা অংকের অর্থ খরচ করে গড়ে তোলা হচ্ছে ভাল মানের ফুটবলার। নিয়মিত নার্সি করা হচ্ছে তাদের। বেনাপোলকে মাদক অস্ত্র মুক্ত রাখতে খেলার প্রতি জোর দেওয়া হচ্ছে। অনেক যুবক কিশোর  তরুন খেলায় ঝুকছে। সহযোগিতা করছেন তারা। মেহেদীর সাফল্যে তাকে আরো অনুপ্রানিত করেছে। নুরইসলাম ফুটবল একাডেমিকে আরো উচ্ছতায় নিতে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
খেলাধূলা পাতার আরো খবর

Developed by orangebd