ঢাকা : শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০

সংবাদ শিরোনাম :

  • এইচএসসি পরীক্ষায় বিষয় সংখ্যা কমানোর চিন্তা চলছে : শিক্ষামন্ত্রী          কোরোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫০৪ জন          যুক্তরাষ্ট্র আর লকডাউন হবে না : ট্রাম্প          করোনাভাইরাস সারাবিশ্বটাকে স্থবির করে দিয়েছে : হাসিনা          স্ত্রীসহ হাসপাতালে ভর্তি মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী          করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের ব্যাংক ঋণের ২ হাজার কোটি টাকা সুদ মওকুফ ঘোষণা
printer
প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৯:৩০:৩৭
প্রশ্নফাঁসে যুক্তদের ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা
টাইমওয়াচ রিপোর্ট


 


শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি বলেছেন, আগামী এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা আয়োজনে বেশকিছু ব্যবস্থা নিয়েছি। এর মধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে প্রশ্ন পাঠাতে বিশেষ ধরনের খাম ব্যবহার করা হবে। যেটা দেখে বোঝা যাবে, খামটি এর আগে কখনোই খোলা হয়নি।
তিনি বলেন, ইতোমধ্যে তিক্ষ্ণ নজরদারি শুরু হয়ে গেছে। যারা আগেও এ কাজ করেছে বা প্রশ্নফাঁসে যুক্ত ছিল তাদের ব্যাপারেও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
দীপু মনি বলেন, আমরা জঙ্গি দমন করতে পেরেছি। মাদক দমনেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তাই প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতেও আমরা সব ব্যবস্থা গ্রহণ করব।
২০ জানুয়ারি রোববার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা উপলক্ষে জাতীয় মনিটরিং ও আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন, পরীক্ষার হলের আশেপাশে ১৪৪ ধারা জারির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা থাকবে। গুজব রটনাকারীদের শনাক্ত করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে সচেতনতামূলক তথ্য গণমাধ্যমে প্রচার করা হবে। পরীক্ষা সংশ্লিষ্টরা ছাড়া কেউ পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে পারবেন না। কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। শুধু কেন্দ্র সচিব বাটন ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।  পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এক্ষেত্রে আমি অভিভাবক, ছাত্রছাত্র্রী ও গণমাধ্যমের সহযোগিতা চাই। ছাত্রছাত্রীরা পড়াশুনা না করে কোথায় প্রশ্নপত্র ফাঁস হচ্ছে তা জানার চেষ্টা করবে না। আমরা ছাত্রছাত্রী, অভিববাকদের কাছে এই আশা করি।
আগামী ২ ফেব্রুয়ারি এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু  হওয়ার কথা রয়েছে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
শিক্ষা পাতার আরো খবর

Developed by orangebd