ঢাকা : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পণ্য মজুদ আছে, রমজানে পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী          বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চায় সরকার          অর্থনৈতিক উন্নয়নে সব ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী          বনাঞ্চলের গাছ কাটার ওপর ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা          দেশের সব ইউনিয়নে হাইস্পিড ইন্টারনেট থাকবে
printer
প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল, ২০১৯ ১৩:১৯:১১
রাউজানে নকল ঔষধ কারখানায় ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা, ৩ জনের কারাদন্ড
এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান (চট্টগ্রাম)


 


রাউজানের নোয়াপাড়ায় অনুমোদনহীন, লাইসেন্স বিহীন, সর্বরোগের ঔষুধ, যৌন সমস্যার সমাধানে যৌন উত্তেজক নানান ধরনের ঔষুধ, ভারত চীন সহ বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন ব্রান্ডের নামে তৈরী যৌন উত্তেজকসহ ডায়াবেটিস চিকিৎসার ঔষুধ, কেমিস্ট বিহীন সাধারণ কর্মচারী দিয়ে তৈরী করা ঔষুধ কারখানায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। র‌্যাব-৭ এর কর্মকর্তা মাসকুর রহমান, কাজী তারেক আজিজ, চট্টগ্রাম জেলা ঔষধ প্রশাসনের কর্মকর্তা কামরুল হাসানের এর সহযোগিতায় রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামিম হোসেন রেজা ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) এহসান মুরাদের নেতৃত্বে গতকাল ৭ এপ্রিল রোববার সকাল ১০টা হতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত একটানা এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
রাউজানের নোয়াপাড়াস্থ কারখানা থেকে উদ্ধার করা হয় যৌন উত্তেজক ঔষুধ তৈরী সহ বিভিন্ন সরাঞ্জাম। ঐ প্রতিষ্ঠানটি সারা দেশে এমনকি দেশের বাইরে বিপননের মূল প্রতিষ্ঠানটির ১০২টি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সার্বক্ষণিক অর্ডার নিয়ে অসংখ্য বিকাশ নম্বরের মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ করে ভুয়া ঔষুধ সরবরাহ করে প্রতারণা করে যাচ্ছিল একটি চক্র। অভিযানে প্রতিষ্ঠানটিকে পাঁচ লক্ষ একত্রিশ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৩ জনকে ৬ মাস করে কারাদন্ড প্রদান করে তাদের চট্টগ্রাম জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন পটিয়ার আবুল খায়েরের পুত্র হাসান মুরাদ (২৩) রাউজানের ডাবুয়ার জগ্ননাথ হাট এলাকার স্বপন করের পুত্র নয়ন কর (২১) রাউজানের বাগোয়ান ইউনিয়নের পাচঁখাইন মাঝি পাড়া এলাকার বদিউল আলমের পুত্র ইমরান।
ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে হারবাল ঔষধ প্রতিষ্ঠানের মালিক আব্দুল হাকিম চৌধুরীর বাড়ী ও বাংলো থেকে বিপুল পরিমান নকল হারবাল ঔষধ উদ্বার করে। আবদুল হাকিম চৌধুরী রাউজানের নোয়াপাড় পথের হাটে দেশ হারবাল নামের একটি হারবাল চিকিৎসালয় গড়ে তোলে। দেশ হারবালের চিকিৎসালয় নাম দিয়ে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা ও নকল তৈরী হারবাল ঔষধ বিক্রয় করে প্রতারনা করে আসছে। গত তিন বৎসর পুর্বে আবদুল হাকিম চৌধুরীকে একবার র‌্যাব আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বলে জানাগেছে।
ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যজিষ্ট্রেট রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম হোসেন রেজা বলেন, অভিযানে বিপুল পরিমাণ নকল হারবাল ঔষধ উদ্বার করার পর আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়। নকল ঔষধ তৈরীর কারখানা থেকে ৩৯ জন কর্মচারীকে আটক করা হয়। আটক কর্মচারী ও মালিক থেকে ৫ লাখ ৩১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সারা দেশ পাতার আরো খবর

Developed by orangebd