ঢাকা : সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • পবিত্র আশুরা ১০ সেপ্টেম্বর          ডিএসসিসির ৩,৬৩১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          সংলাপের জন্য ভারতকে ৫ শর্ত দিল পাকিস্তান          এরশাদের শূন্য আসনে ভোট ৫ অক্টোবর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ২৪ জুন, ২০১৯ ২৩:৪৫:২৯আপডেট : ২৫ জুন, ২০১৯ ১৩:৩১:৫১
অপার হয়ে বসে আছি
মিজানুর রহমান খান


 


১.
পরান কান্দিয়া মরে হইয়া জারজার
শূন্যে তাকাইয়া থাকি বসিয়া অপার।
দেহসনে মন কেন মিলিতে না পারে
বুজিতে পারি না কিছু বলে কি সে ঠারে!
জল যদি পানি হয় দোষ কি'বা তাতে
এত জল ঘোলা হলো সব হাতে হাতে?
চক্ষুতে জলের কণা ফোঁটা-ফোঁটা ঝরে
আন্ধারে তাকায়া চোখ শুকাইয়া মরে।
বাতাস বহিয়া যায় চিরল পাতায়
নিরবধি ডাল পিষি লোহার যাতায়?
পিষিতে পিষিতে মন গলে গলে পড়ে
কেমনে একলা রই শূন্য গোলাঘরে।
ঝিমধরা পাতাগুলি বাতাস পাইলে
নৌকার গলুয়ে জল খেলে কলকলে।
২.
মারাফতি নয় কোন মরমীর গান
মাঝ নদে জল খেলে চান্দের লাহান।
দূর থেকে ভেসে আসা হুইসেল শুনে
মন কয় দেখা হবে বন্ধুয়ার সনে।
সবকিছু ভুলে ভরা শূন্য করে মন
আমারে নাড়ায়া পাখি খেলছে কেমন!
কড়ের হিসাব মত মিলে যায় সব
বিশ্বাসে মিলায় বুঝি, কেহ কার রব?
বিশ্বাসে কপাল পোড়ে? তিলক কপাল
আন্ধার ঘুচবো তার হইবো সকাল।
বুকের গহীনে শ্বাস নিশ্বাসও চলে
পলক পড়ে না থাকে পল অনু পলে।
আবারো বাড়াই হাত আন্ধারের  ঘরে
টের পাই জ্বলিয়া উঠিল কি প্রেমানলে।
 

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd