ঢাকা : রোববার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯

সংবাদ শিরোনাম :

  • দ্বীপ ও চরাঞ্চলে পৌঁছাচ্ছে ইন্টারনেট          দুদকের মামলায় সম্রাটের ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর          এয়ার শো’তে যোগ দিতে দুবাইয়ে প্রধানমন্ত্রী           সরকারি ব্যয়ে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে : স্পিকার          রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণের তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর          বাংলাদেশে আইএস বলে কিছু নেই : হাছান মাহমুদ
printer
প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১৬:৫৭:০১
পাঞ্জেরী বুক শপে বঙ্গবন্ধু বুক গ্যালারি
টাইমওয়াচ ডেস্ক


 


পাঞ্জেরী বুক শপে উন্মোচিত হলো বঙ্গবন্ধু বুক গ্যালারি এবং মঞ্চ। রাজধানীর শান্তিনগরে অবস্থিত পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্সের সহযোগী প্রতিষ্ঠান পাঞ্জেরী বুক শপ। সৃজনশীল বইপ্রেমীদের কাছে এটি ‘পিবিএস’ নামে পরিচিত। এখন থেকে পিবিএস-এ বইপ্রেমীরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে প্রকাশিত দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ধরনের বই খুব সহজেই একটি গ্যালারিতে পাবেন। ফলে তাদের আর কষ্ট করে বিভিন্ন বুক শপে গিয়ে বঙ্গবন্ধু বিষয়ক বই খুঁজতে হবে না। পাশাপাশি গ্যালারিতে থাকবে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন বই এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিপুল বইয়ের সম্ভার।
একইসঙ্গে গ্যালারিসংলগ্ন উন্মোচিত মঞ্চে শিশু-কিশোরদের জন্য প্রতি শুক্রবার সকাল দশটা থেকে বারোটা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বই পড়া, কবিতা ও ছড়া আবৃত্তি, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা নিয়মিতভাবে আয়োজন করা হবে।
গত বুধবার বিকালে ‘বঙ্গবন্ধু বুক গ্যালারি ও মঞ্চ’ উদ্বোধন করেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর। জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী পর্বে সম্মানিত অতিথি ছিলেন কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও বাংলাদেশ পুলিশের ডিআইজি ঢাকা রেঞ্জ হাবিবুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্সের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান শায়ক।
অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, পঁচাত্তরের পর প্রায় দুই দশকের ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু নির্বাসিত ছিলেন। তাই, বঙ্গবন্ধুকে ভালোভাবে জানার প্রয়োজন রয়েছে। আমাদের কর্তব্য বঙ্গবন্ধু কে ছিলেন, কেন ছিলেন, কী ছিলেন সেটা জানা। বাংলাদেশের ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস জানার মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠায় উদ্যোগী হতে হবে।
আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ইতিহাস নিয়ে মানুষের এক ধরনের নির্লিপ্ততা রয়েছে। তরুণ প্রজন্মের দেশ নিয়ে আবেগ কাজ করে কিন্তু দেশটির জন্ম ইতিহাস নিয়ে গভীরে যাওয়ার আগ্রহ কম দেখি। তরুণদের এই ইতিহাসবিমুখতা বদলাতে পারে বই পড়ার অভ্যাস। তরুণ কিশোরদের বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের বই পাঠে সম্মিলিতভাবে উদ্যোগী হতে হবে। পিবিএস এই উদ্যোগ সারাদেশের মানুষের সামনে অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।
সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম বলেন, আমাদের রাজনীতি গণতন্ত্রে প্রত্যাবর্তন করেছে। কিন্তু সেই গণতন্ত্রের পূর্ণাঙ্গ রূপ পেতে হলে বঙ্গবন্ধুর দর্শন, ভাবনা ও কর্ম অনুসরণ করতে হবে। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে প্রচুর কাজ হচ্ছে ঠিক কিন্তু তার অনেক কাজ এখনো লিপিবদ্ধ হয়নি। তাকে নিরন্তর গবেষণা করে যেতে হবে জাতির জীবনে একটি স্থিতিশীল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য।
এখন মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আমাদের ভবিষ্যত গড়বার সময়। জানতে হবে দেশের জন্ম ইতিহাস। ইতিহাসের শক্তিতে এগিয়ে যাবে দেশ। এজন্য বঙ্গবন্ধু বুক গ্যালারি স্থাপন ও মঞ্চ করা হয়েছে বলে জানান পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্সের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান শায়ক।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
সাহিত্য-সংস্কৃতি পাতার আরো খবর

Developed by orangebd