ঢাকা : বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

সংবাদ শিরোনাম :

  • ‘এসডিজি প্রোগ্রেস অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা          করোনায় আরও ২৬ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১৫৬২ জন          বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ, নদীবন্দরসমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত          জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মেডেল পেলেন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ১১০ সদস্য          অষ্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশের মধ্যে টিফা চুক্তি স্বাক্ষর          অনিবন্ধিত সব অনলাইন বন্ধ করে দেওয়া সমীচীন হবে না : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী
printer
প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ১৯:১৪:৩৩
যে যে বিষয়ে অভিজ্ঞ তাকে সে বিভাগের দায়িত্ব দিতে হবে
স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা


 


যে যে-বিষয়ে অভিজ্ঞ তাঁকে সে-বিভাগের দায়িত্ব অর্পণ করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভারপ্রাপ্ত) প্রথিতযশা ইতিহাসবিদ ও গবেষক প্রফেসর ড. মেসবাহ কামাল। ১২ সেপ্টেম্বর রোববার সন্ধ্যায় জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর এবং প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের যৌথ আয়োজনে ‘সেইফ ফুড ফর সাসটেইনেবল লাইফ’ শীর্ষক আর্ন্তজাতিক ই-কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমন মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, গত দুই বছর থেকে কোভিড-১৯ অনেক প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। অনেকে আক্রান্ত হয়েছেন। নিরাপদ খাদ্য মানুষের মধ্যে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। নিরাপদ খাদ্য মানুষের মৌলিক অধিকার, সেটা নিশ্চিত করতে কাজ করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে সরকারকে অনুরোধ করবো অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের যেন সংশ্লিষ্ট বিভাগে দায়িত্ব দেয়া হয়। বিশেষ করে নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তরে ও খাদ্য সংক্রান্ত বিভাগে মাইক্রোবায়োলজিস্ট থাকতে হবে। এছাড়া জাতীয় নীতিনির্ধারণী মহলেও মাইক্রোবায়োলজিস্ট থাকতে হবে। তারা নিরাপদ খাদ্য, স্বাস্থ্যসম্মত বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ মতামত প্রদান করতে পারবেন।
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ মুনির চৌধুরী বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন।
এছাড়া টেকসই জীবনের জন্য নিরাপদ খাদ্য ও পানির ব্যবস্থা, উন্নত দেশে কীভাবে প্রিলিমিনারি স্কুল থেকে সুষম খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা হয় ইত্যাদি বিষয়ের উপর পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে বিভিন্ন গবেষণা কর্ম তুলে ধরেন জাপানের ওসাকা প্রিফেকচার ইউনিভার্সিটির এমিরেটাস প্রফেসর তাকাশি উইমুরা, একই দেশের কচি প্রিফেকচার ইউনিভার্সিটির হেলথ্ অ্যান্ড নিউট্রিশন বিভাগের শিক্ষক ড. ইকুকু শিমাদা, আমেরিকার ম্যারিল্যান্ড ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. জাবদেল আলভারাদো মার্টিনেজ, ভারতের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি এর ফুড প্রসেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. খালিদ গুল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড নিউট্রিশন অ্যান্ড এগ্রিকালচার রিসার্চ বিভাগের প্রধান বিজ্ঞানী ড. লতিফুল বারি, একই বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. সঙ্গীতা আহমেদ, স্টেট ইউনিভার্সিটি ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মু. শাফিনুর রহমান, ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও কোওর্ডিনেটর ড. মাহবুবুল এইচ. সিদ্দিকী ও প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. আসাদুজ্জামান শিশির।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ওয়েবিনার আয়োজক কমিটির আহবায়ক ও প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব সায়েন্সের ডিন অধ্যাপক ড. শুভময় দত্ত।
শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, সাংবাদিকসহ দেড় শতাধিক অংশগ্রহণকারী উপস্থিত ছিলেন এই আন্তর্জাতিক ই-কনফারেন্সে।

printer
সর্বশেষ সংবাদ
শিক্ষা পাতার আরো খবর

Developed by orangebd